আম আদমির দুর্দশা বেড়ে চলেছে, এই একটা কথাই রাখতে পেরেছেন প্রধানমন্ত্রী, নুসরতের খোঁচা

গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী নুসরত জাহান।

আসন্ন নির্বাচনের মুখে দাঁড়িয়ে পেট্রোল, ডিজেল এবং রান্নার গ্যাসের দাম মাত্রা ছাড়িয়েছে। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য গ্যাস ও পেট্রোলের মূল্যবৃদ্ধিতে নাজেহাল জনগণ। তাই এবার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে মুখ খুললেন তৃণমূল সাংসদ অভিনেত্রী নুসরত জাহান।

মঙ্গলবার নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে একটি টুইট করেন সাংসদ অভিনেত্রী। যেখানে মোদি সরকারের বিরুদ্ধে চড়া সুর তুলে লিখেন, “আমজনতার” জীবনে দুর্দশা এবং দুর্ভোগ ডেকে আনতে আমাদের প্রধানমন্ত্রী মোদিজি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। চার মাসের মধ্যে গ্যাসের দাম ৬৯৫ টাকা থেকে ৮২৫ টাকায় এসে দাঁড়িয়েছে। গ্যাসের দাম যে হারে বাড়তে শুরু করেছে তাতে দেশের মানুষের জীবনে দুর্দশা নেমে এসেছে। আর তার জন্য একমাত্র দায়ী দেশের প্রধানমন্ত্রী।

অন্যদিকে, আজ সকালে তৃণমূল সাংসদ অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীও রান্নার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে কেন্দ্র সরকারকে কটাক্ষ করে একটি টুইট করেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, আমার দরজার সামনে এলপিজি গ্যাসের স্যালেন্ডার আসা মাত্রই আমার মাথা ঘুরে গেল। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ক্যা হুঁয়া তেরা ওয়াদা? নিজের রক্ত বিক্রি করে কী এবার ভারতকে আত্মনির্ভর বানাতে হবে?

এর আগে গ্যাসের দাম নিয়ে মুখ খোলেন তৃণমূলের নতুন যোগদানকারী অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ। টুইটারে স্যালাটের ছবি পোস্ট করে তাতে লিখেন, কেন্দ্র সরকার যেভাবে গ্যাসের দাম বাড়াতে শুরু করেছে তাতে স্যালাট খেয়েই দিন কাটাতে হবে।

দফায় দফায় বৃদ্ধি পাচ্ছে গ্যাসের মূল্য। গত রবিবার রাতে এক ধাক্কায় গ্যাসের দাম বেড়ে যায় ২৫ টাকা। গত ৪ মাসের মধ্যে গ্যাসের দাম প্রায় ২২৫ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে।

Comments
Loading...