পরবর্তী পাক প্রধানমন্ত্রী হিসাবে পাকিস্তানের জাতীয় সংসদে নির্বাচিত ইমরান খান

পাক জাতীয় সংসদে দেশের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসাবে নির্বাচিত হলেন ইমরান খান। এদিন সংসদে ভোটাভুটিতে নিজের পক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠতার প্রমাণ দেন ইমরান। ১৭৬ টি ভোট পেয়ে সংসদের নেতা নির্বাচিত হন তিনি। শনিবার দেশের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেবেন ইমরান খান। এদিনের ভোটাভুটিতে তাঁর বিপক্ষে দাঁড়িয়েছিলেন নওয়াজ শরিফের পাকিস্তান মুসলিম লিগের (পিএমএল-এন) তরফে শাহবাজ শরিফ। তিনি পেয়েছেন ৯৬ টি ভোট।
গত ২৫ জুলাই পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর, সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পেলেও একক বৃহত্তম দল হিসাবে উঠে এসেছিল পাক ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক ইমরান খানের পাকিস্তান তেহেরিক ই ইনসাফ (পিটিআই)। একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পেলেও এটা মোটামুটি পরিষ্কার হয়ে গিয়েছিল যে, ইমরান খানই হতে চলেছেন পরবর্তী পাক প্রধানমন্ত্রী। শুক্রবার সংসদে হল ইমরান খানের সংখ্যাগরিষ্ঠতার পরীক্ষা।
পাক জাতীয় সংসদে পিটিআই-এর সদস্য সংখ্যা ১৫২। পাশাপাশি নির্দলসহ অন্য সাতটি দলের সমর্থন পেয়েছেন ইমরান। ফলে পিটিআই-এর দাবি ছিল তাঁদের পক্ষে ১৮০ টিরও বেশি ভোট পড়বে। বাস্তবে পড়েছে ১৭৬ টি। অন্যদিকে, এদিনের ভোটাভুটিতে ইমরানের প্রতিপক্ষ হিসাবে নওয়াজ শরিফের পাকিস্তান মুসলিম লিগের (পিএমএল-এন) তরফে দাঁড় করানো হয়েছিল শাহবাজ শরিফকে। পিএমএল-এন এর পক্ষে ছিল তাঁদের নিজস্ব ৮২ জন সদস্যের সমর্থন। তিনি অতিরিক্ত ১৪ টি ভোট পেয়েছেন। তবে পাক সংসদে ভোটাভুটির আগে জোড় ধাক্কা খেয়েছিল বিরোধী পক্ষ। এতদিন মনে করা হচ্ছিল ভোটাভুটি তে পাকিস্তানের আরেক বিরোধী দল আসিফ আলি জারদারি ও বিলাওয়াল ভুট্টোর পিপিপি, পিএমএল-এন প্রার্থীকে সমর্থন করবে। কিন্তু পিপিপি’র তরফে বৃহস্পতিবার জানিয়ে দেওয়া হয়, তারা ভোটাভুটিতে অংশ নেবে না।

Comments
Loading...