প্রার্থী বদলের দাবিতে রেল অবরোধ বিজেপি কর্মীদের

রানাঘাট উত্তর-পূর্ব কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী করেছে স্থানীয় বিজেপি নেতা অসীম বিশ্বাসকে

প্রার্থী বদলের দাবিতে শনিবার রেল অবরোধ করলেন বিজেপি কর্মী সমর্থকদের একাংশ। রানাঘাট উত্তর-পূর্ব কেন্দ্রে প্রার্থী বদলের দাবিতে এদিন শিয়ালদা গেদে মেন শাখার পাঁচবেড়িয়া হল্ট স্টেশনে অবরোধ করেন স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। রানাঘাট উত্তর-পূর্ব কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী করেছে স্থানীয় বিজেপি নেতা অসীম বিশ্বাসকে।
বিজেপির প্রার্থী তালিকা প্রকাশিত হওয়ার পরই ক্ষোভে ফেটে পড়ে দলের একটি বড় অংশ। জেলায় জেলায় দলীয় কার্যালয় ভাঙচুর, রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ চলতে থাকে। জলপাইগুড়িতে বিজেপির জেলা অফিসে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। জেলায় জেলায় বিক্ষোভের পাশাপাশি বিজেপির কেন্দ্রীয় নির্বাচনী কার্যালয়ের সামনেও জেলা থেকে কর্মী সমর্থকরা এসে দফায় দফায় বিক্ষোভ দেখান। ভোটের মুখে দলের একটি বড় অংশের মধ্যে এ ধরনের ক্ষোভ অসন্তোষে কার্যত জেরবার বিজেপি নেতৃত্ব। দিল্লিতে শীর্ষ নেতৃত্ব এই নিয়ে রাজ্যের বিজেপি নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন।
রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, বিক্ষোভের জেরেই প্রার্থী নির্বাচনের ক্ষেত্রেও একাধিক ক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত বদল করেছে গেরুয়া শিবির। বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি মুকুল রায় দু’দশক পরে ভোটে লড়ছেন। বিজেপির একাধিক সংসদও এবারে ভোটে লড়ছেন।

[আরও পড়ুন- তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন তৃণা-নীল, ঘাসফুলে তারকা যোগ অব্যাহত]

দলের একটি বড় অংশের এই বিক্ষোভ প্রসঙ্গে রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, বিজেপির জেতার সম্ভবনা বেশি তাই টিকিট নিয়ে এত গোলমাল। পাশাপাশি তিনি দলের কর্মচারীদের বার্তা দিয়েছেন, দল যাকেই প্রার্থী করুক, বাকিদের উচিত তাঁকে নির্বাচনে জেতানোর জন্য কাজ করা।
তবে এত কিছুর পরেও বিজেপির একাংশের বিক্ষোভে যে রাশ টানতে শীর্ষ নেতৃত্ব ব্যর্থ তা এদিনের ঘটনায় ফের স্পষ্ট।
যাত্রীদের প্রতিরোধে কিছুক্ষনের মধ্যেই বিজেপি কর্মীদের অবরোধ উঠে যায়। আপাতত ওই রুটে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক।

Comments
Loading...