বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ, পঞ্চমী থেকেই কি কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টি? কী বলছে পূর্বাভাস?

সোমবার থেকেই মেঘলা আকাশ আর বৃষ্টি, পুজোয় ভাসতে পারে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গ। এমনই পূর্বাভাস দিল আবহাওয়া দফতর।

সোমবার, তৃতীয়া থেকেই বৃষ্টি শুরু হয়েছে কলকাতায়। এছাড়া দক্ষিণবঙ্গের অধিকাংশ জেলাতেই আকাশ মেঘলা হয়ে আছে। হাওড়া, হুগলি, দুই মেদিনীপুরে চলছে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি। এই পরিস্থিতিতে আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস, বঙ্গোপসাগরে একটি নিম্নচাপ তৈরি হচ্ছে। এই নিম্নচাপ ক্রমশ শক্তি বৃদ্ধি করে ওড়িশা ও অন্ধ্র উপকূলের মাঝ বরাবর স্থলভাগে প্রবেশ করবে। এর প্রভাবে দুর্গা পুজোর কয়েকদিন হালকা থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সব জেলাতেই।

আবহাওয়া দফতর আরও জানিয়েছে, ২১ থেকে ২৬ অক্টোবর অর্থাৎ, পঞ্চমী থেকে দশমী পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সব জেলাতেই টানা বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। এর মধ্যে ষষ্ঠী থেকে অষ্টমী, এই তিনদিনই, কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টির তীব্রতা ও স্থায়িত্ব বৃদ্ধি পেতে পারে। আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, আগামী ৪৮ ঘণ্টায় উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির আশঙ্কা প্রায় নেই। তবে দক্ষিণে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে। আর বুধবার থেকে শুক্রবার বৃষ্টির তীব্রতা এবং স্থায়িত্ব বাড়তে পারে সারা দক্ষিণবঙ্গে।

হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস বাংলা থেকে বর্ষা বিদায় নিতে এখনও বেশ কিছুটা দেরি রয়েছে। যে হারে বঙ্গোপসাগরে একের পর এক নিম্নচাপ তৈরি হচ্ছে তাতে বোঝা যাচ্ছে বিদায়ের সময় যথেষ্ট সক্রিয় মৌসুমী বায়ু। নিম্নচাপের ও ঘূর্ণাবর্ত, এই দুইয়ের প্রভাবে বারবার বৃষ্টি হচ্ছে বাংলার বিভিন্ন জেলায়। এই নিম্নচাপের প্রভাবে বাংলা ছাড়াও ওড়িশা, অন্ধ্র, তামিলনাড়ু, কর্নাটকে আগামী কয়েকদিন ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস।

এদিন কলকাতায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯৮ শতাংশ এবং সর্বনিম্ন ৭০ শতাংশ। আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, পুজোয় বৃষ্টি হলেও আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি বজায় থাকছে।

Comments
Loading...