রাজস্থানে নবগঠিত মন্ত্রিসভার প্রত্যেকেই কোটিপতি, ৯ জনের বিরদ্ধে রয়েছে ফৌজদারি মামলা, রিপোর্ট এডিআর-এর

বিজেপিকে হারিয়ে সদ্য রাজস্থানে সরকার গঠন করেছে কংগ্রেস। মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন অশোক গেহলট। নয়া মন্ত্রিসভার সদস্য হয়েছেন ২৫ জন।
নির্বাচন কমিশনে জমা দেওয়া এই ২৫ জন মন্ত্রীর সম্পত্তির হিসাব ও হলফনামার ভিত্তিতে সম্প্রতি একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্রেটিক রিফর্মস (এডিআর)।
এই রিপোর্টে দেখা যাচ্ছে, নয়া মন্ত্রিসভার প্রত্যেকেই কোটিপতি। অর্থাৎ মন্ত্রিসভায় কোটিপতির সংখ্যা ১০০ শতাংশ। গড়ে তাঁদের সম্পত্তির পরিমাণ ১৫.৪৮ কোটি টাকার। সব থেকে বেশি ১০৭.৮৭ কোটি টাকার সম্পত্তি আছে মন্ত্রী তথা নিমবাহেরার বিধায়ক অঞ্জনা উদয়লালের। ভরতপুরের বিধায়ক ও মন্ত্রী বিশবেন্দ্র সিংহের সম্পত্তির পরিমাণ ১০৪ কোটি টাকার। বিজেপি শাসিত গত মন্ত্রিসভায় ৯৬ শতাংশ মন্ত্রীই ছিলেন কোটিপতি।
মন্ত্রীদের মধ্যে ১০ জনের বয়স ৩১ থেকে ৫০ এর মধ্যে। বাকি ১৫ জনের বয়স ৫১ থেকে ৮০ এর কোঠায়। মন্ত্রীদের শিক্ষাগত যোগ্যতার যে পরিসংখ্যান সামনে এসেছে তাতে দেখা যাচ্ছে, ২৫ জন মন্ত্রীর মধ্যে ৮ জন দশম থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন। স্নাতক বা স্নাতোকত্তর ডিগ্রি রয়েছে বাকি ১৭ জন মন্ত্রীর।
রাজস্থানের নয়া মন্ত্রিসভার ৯ জনের নামে আছে ফৌজদারি মামলা। যা শতাংশের হিসাবে ৩৬ শতাংশ। গত মন্ত্রিসভায় তা ছিল ২২ শতাংশ। এর মধ্যে ৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ বেশ গুরুতর। লালসোটের বিধায়ক তথা মন্ত্রী প্রসাদী লালের বিরুদ্ধে রয়েছে একটি খুনের মামলা। হিন্দোলি বিধানসভা কেন্দ্র থেকে জিতে মন্ত্রিসভায় আসা অশোকের নামে আছে খুনের চেষ্টার দুটি অভিযোগ। রাজস্থানের নয়া মন্ত্রিসভায় জায়গা পেয়েছেন মাত্র একজন মহিলা।

Comments
Loading...