অর্ণব গোস্বামীর রিপাবলিক টিভিকে ৬ মাস সাসপেন্ড করার দাবি সাংবাদিক রাজদীপ সারদেশাইয়ের! ফেক নিউজের অভিযোগ

মাঝ আকাশে স্ট্যান্ডআপ কমেডিয়ান কুণাল কামরা-কাণ্ডের পর ফের একবার শিরোনামে নিউজ চ্যানেল রিপাবলিক টিভি এবং তার সম্পাদক তথা মুখ্য অ্যাঙ্কর অর্ণব গোস্বামী। এবার রিপাবলিকের বিরুদ্ধে উঠল ফেক নিউজ ছড়ানোর অভিযোগ। এই ঘটনার প্রেক্ষিতে রিপাবলিক টিভিকে ৬ মাসের জন্য সাসপেন্ড করার দাবি আরেক সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডের অ্যাঙ্কর এবং সাংবাদিক রাজদীপ সারদেশাইয়ের।
ঘটনার সূত্রপাত বৃহস্পতিবার জামিয়া মিলিয়ায় এক কিশোরের গুলি ছোড়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে। অর্ণব গোস্বামীর রিপাবলিক টিভিতে প্রাথমিকভাবে জানানো হয়, প্রতিবাদরত পড়ুয়ারাই হিংসাত্মক হয়ে উঠেছে এবং গুলি ছুড়তে শুরু করেছে।
যদিও জানা যায়, এক কিশোর নিজেকে হিন্দু ধর্মের রক্ষাকর্তা বলে দাবি করে প্রতিবাদরত পড়ুয়াদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে এবং অভিযোগ, সেই সময় দিল্লি পুলিশ কার্যত দর্শকের ভূমিকায় ছিল। অভিযোগ ওঠে, রিপাবলিক টিভি খবরটিকে ভুলভাবে পরিবেশন করে গোটা ঘটনার মোড় অন্যদিকে ঘুরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছিল। জামিয়া মিলিয়া এলাকায় সেই সময় উপস্থিত সাংবাদিকরাও রিপাবলিকে সম্প্রচারিত খবরের সত্যতা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন।
সন্ধে সাড়ে ৬ টা নাগাদ এই প্রসঙ্গে ট্যুইট করেন সেই সময় জামিয়া এলাকায় উপস্থিত থাকা সিনিয়র সাংবাদিক তথা অ্যাঙ্কর রাজদীপ সারদেশাই। আর নিজের ট্যুইটে রাজদীপ সারদেশাই করেন এক বিস্ফোরক দাবি। একটি ছবিকে শেয়ার করে তিনি ট্যুইটে লেখেন, শেষ কয়েক ঘণ্টা জামিয়া থেকে রিপোর্টিং করার পর একথা বলতে আমার বিন্দুমাত্র সংশয় নেই, এটা সম্পূর্ণভাবে ভুয়ো খবর। শুধু এই কারণেই যে কোনও সভ্য গণতন্ত্রে এই ধরনের চ্যানেলকে অন্তত ৬ মাসের জন্য সাসপেন্ড করা উচিত। শেষে রাজদীপ সারদেশাই লেখেন, পুরো বিষাক্ত।

নির্বাচনী প্রচার মঞ্চ থেকে দু’দিন আগেই দেশের গদ্দারদের গুলি মারার নিদান দিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর। তাই সমাজের বিভিন্ন অংশ থেকে জামিয়ার ঘটনার পর মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুরকেও গ্রেফতারির দাবি উঠছে।

বৃহস্পতিবার রাতে রিপাবলিক টিভির এক অনুষ্ঠানে অবশ্য দুপুরের ভুল সংশোধন করে নিয়েছেন অর্ণব গোস্বামী। যদিও রাজদীপ সারদেশাইয়ের মতো সিনিয়র সংবাদিকের অন্য এক সংবাদমাধ্যমকে সাসপেন্ড করার এই দাবি রীতিমতো বেনজির।

Comments
Loading...