মুখ্যমন্ত্রীর ছবি ব্যবহার করে তোলাবাজি করা যাবে না, নদিয়ায় দলীয় কর্মীদের বার্তা মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি ব্যবহার করে তোলা নেওয়া বরদাস্ত করা হবে না, এবার কাটমানি নিয়ে দলীয় কর্মীদের সাবধান করলেন রাজ্যের মন্ত্রী তথা তৃণমূলের নদিয়া জেলা পর্যবেক্ষক রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।
শুক্রবার নদিয়ার নাকাশিপাড়ার আড়বেতাইয়ে তৃণমূল কর্মীদের নিয়ে বৈঠকে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, মুখ্যমন্ত্রীর ছবি ব্যবহার করে লুটেপুটে খাওয়া বরদাস্ত করা হবে না। কেউ যদি ভাবেন, রাবার স্ট্যাম্প ব্যবহার করে নিজের স্বার্থসিদ্ধি করবেন, তা হবে না। মন্ত্রীর অভিযোগ, কোথাও কোথাও ‘করে-কম্মে’ খাওয়ার জন্য তৃণমূলকে ব্যবহার করছেন কয়েকজন। এরপরেই মন্ত্রীর সাবধান বার্তা, যাঁরা এইভাবে চলছেন, এই দল তাঁদের জন্য নয়।
প্রসঙ্গত, লোকসভা ভোটের পর থেকেই তৃণমূল নেত্রী খোদ সরকারি প্রকল্প থেকে কাটমানি নেওয়া ও দুর্নীতি প্রসঙ্গে দলীয় নেতা, মন্ত্রী ও কর্মীদের সাবধান করেছেন। দলের সংগঠন মজবুত করতে একাধিক পরিবর্তন এনেছেন। সংগঠনেও কিছু রদবদল এনেছেন। এবার একই বার্তা দিলেন মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ও। তিনি আরও বলেন, শুধুমাত্র ফলাফলের দিয়ে সংগঠন কেমন তা বিচার হয় না। কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূল জয়ী হয়েছে মানেই দলীয় সংগঠন মজবুত রয়েছে, তা ভাবার কারণ নেই। শুক্রবার তৃণমূলের জেলা পর্যবেক্ষক নদিয়ার সভায় বলেন, দলের যেটুকু খামতি আছে মিটিয়ে ফেলতে হবে। প্রত্যেক বুথে নিজেদের সংগঠন মজবুত করতে হবে।
শুক্রবার মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন কৃষ্ণনগরের সাংসদ সদস্য মহুয়া মৈত্র, জেলা পরিষদের সভাধিপতি রিক্তা কুণ্ডু, পলাশীপাড়ার বিধায়ক তাপস সাহারা।

Comments
Loading...