বিজেপির সাক্ষী: বিহারে MIM এর সাহায্য পেয়েছি, বাংলাতেও পাব, ভগবান ওয়েইসিকে শক্তি দিন!

প্রশংসা করতে গিয়ে এমন কথা বললেন যে তোলপাড় পড়ে গেল জাতীয় রাজনীতিতে। তিনি বিজেপি সাংসদ সাক্ষী মহারাজ। কট্টর হিন্দুত্ববাদী এই নেতা প্রশংসা করছিলেন মিম প্রধান আসাদুদ্দিন ওয়েইসির। আর তা করতে গিয়ে দলকেই বিপদে ফেললেন। কীরকম? 

বিজেপি সাংসদকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, বাংলা ও উত্তরপ্রদেশের ভোটে মিম লড়বে। তা নিয়ে কী বলবেন? উন্নাওয়ের সাংসদ সাক্ষী মহারাজ বলেন, সবই ঈশ্বরের দয়া। ভগবান ওঁকে শক্তি দিন। ওঁরা বিহারেও সাহায্য করেছিলেন। আশা করি বাংলা ও উত্তরপ্রদেশেও একইরকম সাহায্য পাব। 

বিজেপি সাংসদের এই বাক্যবন্ধ নিয়ে তোলপাড় জাতীয় রাজনীতি। 

সাক্ষী মহারাজের এই মন্তব্যের পর তা নিয়ে কাটাছেঁড়া শুরু হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। আসাদুদ্দিন ওয়েইসির দল AIMIM কে বিরোধীরা বিজেপির বি টিম বলে কটাক্ষ করে। সাক্ষী মহারাজের এই মন্তব্য তাতে ঘি ঢেলেছে। বিরোধীরা বলছেন, বিহারে ওয়েইসির দল ৫ টি আসন জিতেছে। মহাজোটের অভিযোগ ছিল মিম বিরোধী ভোট কেটে বিজেপির রাস্তা সাফ করে দিয়েছে তারা। যদিও এই অভিযোগ মানতে চাননি ওয়েইসি। তাঁর পাল্টা দাবি, বিহারে কংগ্রেস ৫০ টি আসনে হেরেছে। ওই ৫০ টি আসনেই জয় পেয়েছে এনডিএ। তাহলে ভোট কেটে মহাজোটের যাত্রা ভঙ্গ করল কারা?

এপ্রিল মাসেই পশ্চিমবঙ্গে ভোট। সেখানে প্রথমবারের জন্য লড়তে চলেছে ওয়েইসির মিম। যা নিয়ে বিজেপি বিরোধী দলগুলোর মধ্যে অসন্তোষ রয়েছে। সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিম রাজ্যের সমস্ত সংখ্যালঘু সংগঠনকে একসঙ্গে লড়াই করার বার্তা দিয়েছেন। পাশাপাশি আব্বাস সিদ্দিকিকেও মিমের সঙ্গে জোট না করে বৃহত্তর বিজেপি বিরোধী ঐক্য গড়ে তুলতে ডাক দিয়েছেন কিন্তু স্পষ্ট করে দিয়েছেন সেই জোটে মিমের কোনও স্থান নেই। 

এদিকে তৃণমূল দাবি করছে বিজেপির বি টিম মিম বাংলায় নামলে বিশেষ সুবিধা করতে পারবে না। কারণ বাংলায় উর্দুভাষী মানুষের সংখ্যা খুব কম। এবং বাঙালিদের মধ্যে ওয়েইসির কোনও প্রভাব নেই। এই প্রেক্ষিতে আসাদুদ্দিন ওয়েইসির জন্য ভগবানের কাছে প্রার্থনা করলেন বিজেপি সাংসদ সাক্ষী মহারাজ। বিরোধীদের দাবি, মিম যে বিজেপির বি টিম তা সাক্ষী মহারাজের বক্তব্যের পর পরিষ্কার হয়ে গেল।

Comments
Loading...