৩ কোটি টাকা সোনা-প্রতারণার শিকার শতাব্দী রায়, পুরনো সোনা বদলে দেওয়ার নাম করে সাংসদের সঙ্গে জালিয়াতি

পুরনো সোনা পাল্টে হলমার্ক যুক্ত সোনা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তৃণমূল সাংসদ তথা অভিনেতা শতাব্দী রায়ের কাছ থেকে নগদ ও গয়না মিলিয়ে প্রায় ৩ কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগ। গ্রেফতার এক।
পুরনো সোনা বদলে দেওয়া হবে হলমার্ক যুক্ত সোনা। এই দাবি করে পশ্চিম মেদিনীপুরের বাসিন্দা জনৈক সুকুমার সামন্ত ২ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকার গয়না ও নগদ হাতিয়ে পালিয়েছে বলে সম্প্রতি গড়িয়াহাট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন শতাব্দী রায়। লালবাজারের গোয়েন্দা বিভাগ তদন্তে নেমে বুধবার সুকুমার সামন্তকে গ্রেফতার করে। আদালত তাকে ২২ নভেম্বর পর্যন্ত পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছে।
জানা গিয়েছে, কদিন আগে শতাব্দী রায়ের কাছে পুরনো সোনা বদলে দেওয়ার কথা বলে প্রথমে বিশ্বাস অর্জন করে অভিযুক্ত। সত্যতা প্রমাণে এই সংক্রান্ত কিছু নথিও সাংসদকে দেখানো হয়েছিল। এতে ভরসা পান শতাব্দী রায়। যদিও সেই সব নথি ছিল ভুয়ো বলে পুলিশ সূত্রে খবর।
শতাব্দী রায়ের কাছ থেকে যে পুরনো সোনার গয়না ও নগদ টাকা হাতানো হয়েছে, তা কোথায় রাখা আছে খুঁজে দেখছে পুলিশ। পুলিশ সূত্রে খবর, মূল অভিযুক্তকে যখন পাকড়াও করা গিয়েছে তখন সোনা-নগদের সন্ধান পেতে বিশেষ দেরি হবে না বলেই মনে করছেন গোয়েন্দারা। প্রতারণা চক্রে আর কারা জড়িত জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। শতাব্দীর কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।
এর আগেও পুরনো সোনা বদলে হলমার্কযুক্ত সোনা দেওয়ার নামে প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। এবার বাংলার প্রথম সারির অভিনেতা তথা তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায় নিজেই প্রতারকের খপ্পরে পড়লেন।

Comments
Loading...