নন্দীগ্রামেই সম্ভবত শুভেন্দু, নিজেই জানালেন দলীয় বৈঠকে

বৃহস্পতিবার বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার বাড়িতে বৈঠকে বসেছিলেন রাজ্য বিজেপির নির্বাচনী কমিটি, ও কেন্দ্রের শীর্ষ নেতৃত্ব

নন্দীগ্রাম থেকে ভোটে লড়তে চান, দিল্লিতে বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে এমনটাই জানিয়েছেন নন্দীগ্রামের প্রাক্তন বিধায়ক অধুনা বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী।

বৃহস্পতিবার বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার বাড়িতে বৈঠকে বসেছিলেন রাজ্য বিজেপির নির্বাচনী কমিটি, ও কেন্দ্রের শীর্ষ নেতৃত্ব। বাংলায় একুশের নির্বাচনে প্রথম দু’দফার প্রার্থী তালিকা নিয়ে আলোচনায় বসেছিলেন দিলীপ, মুকুল, অমিত শাহেরা। সূত্রের খবর, ওই মিটিং-এ শুভেন্দু নিজের পুরোনো কেন্দ্র নন্দীগ্রাম থেকেই প্রার্থী হওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন গেরুয়া শিবিরের শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে। বৈঠক শেষে তৃণমূলের প্রাক্তন মন্ত্রী রাজীব ব্যানার্জিও সাংবাদিকদের একথা জানান।

[আরও পড়ুন- আরজেডি-সমাজবাদী পার্টির পরে এবার তৃণমূলকে সমর্থনে শিবসেনার,বাঘিনীর মত লড়াই করছেন মমতা, মন্তব্য সঞ্জয় রাউতের]

শুভেন্দু অধিকারীর তৃণমূল ত্যাগের একমাসের মধ্যেই নন্দীগ্রামে জনসভা করতে গিয়ে মমতা ঘোষণা করেন তিনি এবারে নন্দীগ্রামে প্রার্থী। খবর, সেই মত জোর প্রস্তুতিও শুরু করে দিয়েছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। সুব্রত মুখার্জি, সুব্রত বক্সীরা দফায় দফায় গিয়ে নন্দীগ্রামের ভোট প্রস্তুতি দেখে এসেছেন। মমতার ঘোষণার পরেই রাজ্য রাজনীতিতে একটাই প্রশ্ন ঘুরছিল, মমতার বিপরীতে কে? জল্পনা ছিল শুভেন্দুর নাম নিয়ে। এদিন নিজের ইচ্ছে প্রকাশে করে সেই জল্পনাকেই কিছুটা মান্যতা দিলেন শুভেন্দু।

এদিকে এবারে নন্দীগ্রামে প্রার্থী দিতে পারে বাংলার রাজনীতিতে নবাগত আব্বাস সিদ্দিকীর দল। সবমিলিয়ে, ফলাফল যাই হোক না কেন, একুশের মহাযুদ্ধে যে মূল আকর্ষণ হতে চলেছে নন্দীগ্রামের মাটি, তা এদিন ফের স্পষ্ট।

Comments
Loading...