উপনির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈনের অপসারণের দাবি জানিয়ে মুখ্য নির্বাচন কমিশনরাকে চিঠি তৃণমূলের

২০১৯ এ বাংলায় লোকসভা ভোটের দায়িত্বে ছিলেন সুদীপ জৈন

উপনির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈন নিরপেক্ষ আচরণ করছেন না, বৃহস্পতিবার সাংবাদিক বৈঠকে অভিযোগ করেন তৃণমূলের বর্ষীয়ান সাংসদ সৌগত রায়। তিনি বলেন, সুদীপ জৈন দায়িত্বে থাকলে বাংলায় সুষ্ঠ নির্বাচন হবে না। তৃণমূলের রাজ্য সভার সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন সুদীপ জৈনের অপসারণের দাবি জানিয়ে মুখ্য নির্বাচন কমিশনারকে চিঠি লিখেছেন, বলেও জানান সৌগত।

অভিযোগের কারণ হিসেবে তৃণমূল সাংসদ বলেন, সুদীপ জৈন ভোট পরিচলনার জন্য কুইক রেস্পন্স টিম বানিয়েছেন। এই বাহিনীর প্রধান হিসেবে একজন কেন্দ্রীয় অফিসারকে রেখেছেন, যা যুক্ত রাষ্ট্রীয় কাঠামোয় বেআইনি। সেই সঙ্গে তিনি বলেন, ২০১৯ সালেও এই অফিসার লোকসভা ভোট পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন। তখনও তাঁর একাধিক কাজকর্ম পক্ষপাতিত্ব মূলক বলে তৃণমূলের মনে হয়েছিল।

[আরও পড়ুন- সংযুক্ত মোর্চার প্রথম মিছিল, ৬ মার্চ পথে বাম-কং-আব্বাসের জোট]

সাংসদের কথায়, ১৯ এর লোকসভা ভোটের সময় উত্তর কলকাতায় অমিত শাহের রোড-শো চলাকালীন, বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা হয়। এই ঘটনায় সুদীপ জৈনের ভুল রিপোর্টের জেরে দু’দিন আগেই প্রচার বন্ধ করে দিতে হয় তৃণমূলকে। শিবসেনার তৃণমূলকে সমর্থন জানানোর সিদ্ধান্তকেও স্বাগত জানিয়েছেন সৌগত।

সাংবাদিক বৈঠকের শুরুতে এদিন সৌগত রায়ের হাত থেকে তৃণমূলের দলীয় পতাকা তুলে নেন সঙ্গীত শিল্পী অদিতি মুন্সি।

Comments
Loading...