তৃণমূলের জহর সরকারের বিরুদ্ধে প্রার্থী দিচ্ছেনা বিজেপি, জানালেন শুভেন্দু

রাজ্যসভায় উপনির্বাচনে কোনও প্রার্থী দিচ্ছে না বিজেপি। এই আসনের ফল সবার জানা। জানিয়ে দিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। একটি টুইট করে তিনি জানান, রাজ্যসভায় উপনির্বাচনের মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ বৃহস্পতিবার। বিজেপি এই আসনে কোনও প্রার্থী দিচ্ছে না। উপনির্বাচনের ফলাফল সকলের জানা। তবে এই সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই জারি থাকবে।

আগামী ৯ অগাষ্ট এই আসনে উপনির্বাচন হবে আর ওইদিনই গণনা হবে। এই আসনের জন্য তৃণমূল প্রার্থী করেছে প্রসার ভারতীর প্রাক্তন সিইও জহর সরকারকে। বুধবারই বিধানসভায় গিয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়ে এসেছেন তিনি। মোদী সরকারের নীতির বিরোধিতায় মেয়াদ শেষের আগেই অবসর নিয়েছিলেন আইএএস জহর সরকার। মোদীর সরকারের সমালোচনা এর আগেও শোনা গিয়েছিল তাঁর মুখে। এই আসনে লড়াই করার জন্য মুকুল রায়, যশবন্ত সিংহর মতন হেভিওয়েট নেতাদের নাম উঠে এসেছিল। কিন্তু স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি জহর সরকারকে প্রার্থী হওয়ার জন্য অনুরোধ করেন। এদিন মনোনয়ন জমা দেওয়ার পর জহর সরকার জানান, এই আসনের জন্য অনেক হেভিওয়েট নেতাদের নাম উঠেছিল। কিন্তু মমতা ব্যানার্জিকে অনেক ধন্যবাদ আমাকে প্রার্থী করার জন্য।

উল্লেখ্য, বিধানসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যসভার তৃণমূল সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন দীনেশ ত্রিবেদী। এরপর তিনি যোগ দেন বিজেপিতে। তাঁর ছেড়ে দেওয়া আসনেই হতে চলেছে উপনির্বাচন। বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত এই আসনের জন্য মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন নির্ধারণ করা হয়েছিল। কিন্তু বিধানসভার সমীকরণ অনুযায়ী জহর সরকারের জয় নিশ্চিত ছিল। কারণ বিধানসভায় তৃণমূল বিধায়ক সংখ্যার নিরিখে বিজেপির জয় সম্ভব ছিলনা। কিন্তু কয়েক দিন আগে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন, ওই আসনে বিজেপিও প্রার্থী দেবে। কিন্তু টুইট করে শুভেন্দু অধিকারী জানিয়ে দিলেন, ফলাফল সবার জানা, তাই কোনও প্রার্থী দিচ্ছেনা বিজেপি।

Comments
Loading...