ফের ধুন্ধুমার বারাকপুর, তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ, মাথা ফাটল অর্জুন সিংহের

ফের ধুন্ধুমার বারাকপুরের জগদ্দল, শ্যামনগর এলাকা। রবিবার বারাকপুরের জগদ্দল, শ্যামনগরে পার্টি অফিস দখলকে কেন্দ্র করে তৃণমূল-বিজেপির দফায় দফায় গণ্ডগোল, সংঘর্ষ হয়। বিজেপির অবরোধ তুলতে গিয়ে ব্যাপক লাঠিচার্জ করে পুলিশ। বিজেপির অভিযোগ, পুলিশি লাঠিচার্জে মাথা ফাটে বারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংহের। প্রাথমিক চিকিৎসার পর বারাকপুরের সাংসদকে কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
ঘটনার সূত্রপাত রবিবার সকাল ১০ টা নাগাদ শ্যামনগর ফিডার রোডে। বিজেপির একাধিক পার্টি অফিস তৃণমূল দখল করছে বলে অভিযোগ করে এ দিন সকালে রাস্তায় নামে বিজেপি। বারাকপুরের বিভিন্ন জায়গায় দফায় দফায় তৃণমূল-বিজেপির সংঘর্ষ শুরু হয়। অবস্থা নিয়ন্ত্রণে আনতে বিরাট পুলিশ বাহিনী এবং র‌্যাফ নামানো হয়। কিন্তু তাতেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসেনি। সংঘর্ষে সাংসদ অর্জুন সিংহের মাথা ফেটেছে। তার পর থেকেই ভাটপাড়া, জগদ্দল, শ্যামনগর সহ বিভিন্ন এলাকা ফের উত্তপ্ত হতে শুরু করে।
তৃণমূল-বিজেপি সমর্থকদের সংঘর্ষের মধ্যেই ঘটনাস্থলে পৌঁছান অর্জুন সিংহ। তাঁর অভিযোগ, তিনি মোহনপুরের একটি রক্তদান শিবিরে যাচ্ছিলেন। সেই সময় তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীরা তাঁদের পার্টি অফিস দখলের চেষ্টা চালাচ্ছে বলে খবর পেয়ে তিনি সেখানে যান।
এই ঘটনার কিছুক্ষণ পরেই মেঘনা মোড়ের কাছে ফের তৃণমূল-বিজেপি খণ্ডযুদ্ধ শুরু হয়। সেখানে আক্রান্ত হন অর্জুন সিংহ। তাঁর মাথা ফেটে যায়। স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। মাথায় সেলাই করে চিকিৎসকেরা তাঁকে কলকাতার বেসরকারি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করেন।

Comments
Loading...