বিশিষ্টদের বিরুদ্ধে এফআইআর করা সুধীর ওঝা মামলা করেছিলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধেও

অসহিষ্ণুতা এবং ধর্মকে হাতিয়ার করে হিংসার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছিলেন পরিচালক আদুর গোপালকৃষ্ণান, অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, চিত্র পরিচালক অপর্ণা সেন, শ্যাম বেনেগাল, অভিনেত্রী কঙ্কনা সেনশর্মা, ইতিহাসবিদ রামচন্দ্র গুহ সহ বিভিন্ন পেশার একাধিক বিশিষ্ট ব্যক্তি। যার জেরে তাঁদের বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছে মামলা। আর এই মামলা করেছেন বিহারের মুজফফরপুরের আইনজীবী জনৈক সুধীরকুমার ওঝা। তাঁর করা এফআইআরের ভিত্তিতে ৪৯ জন বিশিষ্ট ব্যক্তির বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতা সহ একাধিক ধারায় মামলা দায়ের হয়েছে। তার পরেই ফের আলোচনায় উঠে এসেছেন আইনজীবী সুধীরকুমার ওঝার নাম।
কিন্তু জানেন কি, কে এই আইনজীবী সুধীরকুমার ওঝা? এর আগেও বহু ক্ষেত্রেই দেশের বিভিন্ন বিশিষ্ট ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করে খবরের শিরোনামে এসেছেন তিনি। এমনকী সুধীর ওঝা মামলা করেছিলেন সিপিএম নেতা এবং রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধেও। যদিও সেই মামলা খারিজ হয়ে গিয়েছিল।
রামসেতু একটি প্রাকৃতিক কাঠামো, এই কথা বলার জন্য বেশ কয়েক বছর আগে সুধীর ওঝা প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহ এবং বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধে মামলা করেন। কিন্তু রাষ্ট্রপতি এবং রাজ্যপালের অনুমোদন না মেলায় সেই মামলা খারিজ হয়ে যায়। এছাড়া অমিতাভ বচ্চন, বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদব, এমনকী রাজ ঠাকরের বিরুদ্ধেও অতীতে মামলা করেছেন বিহারের এই আইনজীবী।
জানা গিয়েছে, সুধীর ওঝা এখনও পর্যন্ত ৭৪৫ টি জনস্বার্থ মামলা করেছেন বিভিন্ন ব্যক্তির বিরুদ্ধে। তার মধ্যে ১৩০ টি মামলা আদালত খারিজ করে দিয়েছে।
কিন্তু এবার দেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রের একাধিক বিশিষ্ট ব্যক্তির বিরুদ্ধে তাঁর করা এই মামলা নিয়ে আলোচনা-জল্পনা শুরু হয়েছে। কারণ, অসহিষ্ণুতা এবং হিংসা নিয়ে বিশিষ্টরা চিঠি দিয়েছিলেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীরা। যার জেরে প্রশ্ন উঠছে, এই মামলার পিছনে কি বিজেপির কোনও ভূমিকা আছে? কিন্তু, এই অভিযোগ খারিজ করেছে বিজেপি।

Comments
Loading...