৪৯ জন বিশিষ্টের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার মামলা: মোদীকে খোলা চিঠি ১৮০ জন বুদ্ধিজীবীর, হস্তক্ষেপের আর্জি

দেশে ক্রমবর্ধমান অসহিষ্ণুতা এবং হিংসার ব্যাপারে অভিযোগ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লেখার জেরে ৪৯ জন বিশিষ্ট ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে বিহারে। হয়েছে এফআইআরও। এবার এই ৪৯ জন বিশিষ্টের পক্ষে দাঁড়িয়ে এবং বিহারে হওয়া মামলা ও এফআইআর-এর সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে খোলা চিঠি দিলেন বিভিন্ন পেশার সঙ্গে যুক্ত ১৮০ জন ব্যক্তি। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন অভিনেতা নাসিরুদ্দিন শাহ, নৃত্যশিল্পী মল্লিকা সারাভাই, সাহিত্যিক অশোক বাজপেয়ী, নয়নতারা সেহগাল, ঐতিহাসিক রোমিলা থাপার সহ অনেকে।
ঘটনার সূত্রপাত কয়েক মাস আগে। দেশে অসহিষ্ণুতা, হিংসা বৃদ্ধি এবং ভিন্ন মত পোষনের অধিকার খর্ব হচ্ছে, এই অভিযোগে নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি দিয়েছিলেন পরিচালক আদুর গোপালকৃষ্ণন, অপর্ণা সেন, মণিরত্নম, অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, কঙ্কনা সেনশর্মা, ঐতিহাসিক রামচন্দ্র গুহ সহ দেশের ৪৯ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি। এই চিঠির জেরে তাঁদের বিরুদ্ধে সম্প্রতি বিহারে মামলা দায়ের করেন আইনজীবী জনৈক সুধীর ওঝা। সেই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে এফআইআরও হয়েছে বিশিষ্টদের বিরুদ্ধে। এবার সেই মামলা এবং এফআইআর-এর সমালোচনা করে ১৮০ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি খোলা চিঠি দিলেন প্রধানমন্ত্রীকে।
সূত্রের খবর, ১৮০ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি লিখেছেন, দেশে অহসিষ্ণুতা, গণপিটুনি, হিংসার ঘটনা ঘটছে। এই ধরনের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে এবং হস্তক্ষেপের আর্জি জানিয়ে যাঁরা প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছিলেন, তা কীভাবে দেশদ্রোহিতা হিসেবে চিহ্নিত হতে পারে। এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন ১৮০ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি।

Comments
Loading...