ভোট পরবর্তী হিংসা অব্যাহত, চাকদায় যুবক খুন, অভিযোগ পাল্টা অভিযোগ বিজেপি-তৃণমূলের

ভোটের ফল বেরোনোর পর থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় রাজনৈতিক সংঘর্ষের খবর আসছে। পার্টি অফিস দখল, ভাঙচুর, আগুন লাগানোর অভিযোগ পাল্টা অভিযোগের মধ্যেই এবার ভোট পরবর্তী হিংসায় এক যুবকের খুন হওয়াকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত নদিয়ার চাকদা। লোকসভা ভোটে রানাঘাট কেন্দ্রে জয় পেয়েছে বিজেপি। চাকদা এলাকা এই রানাঘাট লোকসভার অন্তর্গত। যুবক খুনকে কেন্দ্র করে এলাকায় তীব্র উত্তেজনা।

শুক্রবার রাতে সন্তু ঘোষ নামে ওই যুবককে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে গুলি করে খুন করা হয় বলে অভিযোগ। বিজেপির দাবি, খুন হওয়া যুবক তাঁদের কর্মী ছিলেন। ভোটের সময় রানাঘাটের বিজেপি প্রার্থীর হয়ে পুরোদমে প্রচারও চালিয়েছিলেন তিনি। দোষীদের শাস্তির দাবিতে শনিবার সকাল থেকে চাকদায় ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক ও রেল অবরোধ করে বিজেপি। চরম ভোগান্তিতে পড়েন সাধারণ মানুষ। ঘণ্টা তিনেক অবরোধ চলার পর, প্রশাসনের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেয় বিজেপি। অন্যদিকে, তাদের বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব।

বৃহস্পতিবার ভোটের ফল বেরনোর পর থেকেই রাজ্যজুড়ে হিংসার ঘটনা ঘটছে, দায় নিয়ে চলছে তৃণমূল-বিজেপির চাপানউতোর। যদিও, মৃত সন্তু ঘোষের পরিবারের দাবি, তিনি কোনও দলের সঙ্গেই যুক্ত ছিলেন না।

Comments
Loading...