একাধিক নির্বাচনী বিধি ভঙ্গের অভিযোগের প্রেক্ষিতে শেষ পর্যন্ত নড়েচড়ে বসল নির্বাচন কমিশন। সূত্রের খবর, ভোট প্রচারে বেরিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করায় উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এবং বহুজন সমাজ পার্টির নেত্রী মায়াবতীর নির্বাচনী প্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে নির্বাচন কমিশন।

ভোটের প্রচারে ভারতীয় সেনাবাহিনীকে মোদীজির সেনা বলে মন্তব্য করেছিলেন যোগী আদিত্যনাথ। এরপরই বিধিভঙ্গের অভিযোগ সরব হয়েছিল বিরোধীরা। অভিযোগ জানানো হয়েছিল কমিশনের কাছেও। কিন্তু বিরোধীদের অভিযোগ, কেবলমাত্র সতর্ক করেই আদিত্যনাথকে ছেড়ে দিয়েছিল কমিশন। এদিকে ৯ ই এপ্রিল ফের আলি এবং বজরঙ্গবলী নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন যোগী আদিত্যনাথ। ধর্মীয় বিভাজন করতে চাইছেন, এই অভিযোগ জমা পড়ে কমিশনের দফতরে। আদিত্যনাথের সেই মন্তব্যের পাল্টা জবাব দিয়েছিলেন বিএসপি নেত্রী মায়াবতীও। এরপর দু’জনকেই নোটিশ পাঠায় নির্বাচন কমিশন। আদিত্যনাথের ভোট প্রচারে বেরোনোয় আগামী ৭২ ঘণ্টা নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। একইভাবে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য মায়াবতীকেও আগামী ৪৮ ঘণ্টা প্রচারে যেতে নিষেধ করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর। ১৬ ই এপ্রিল অর্থাৎ সকাল ৬ টা থেকে এই নির্দেশ কার্যকরী হবে।

You may also like