ভোট পরবর্তী বাংলায় লাগাতার হিংসা, ভাটপাড়া ও গলসিতে ৩ তৃণমূল কর্মীর মৃত্যুতে তীব্র উত্তেজনা

ভোট পরবর্তী হিংসা অব্যাহত। উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়া ও পূর্ব বর্ধমানের গলসিতে মৃত্যু হল ৩ তৃণমূল কর্মীর। ভাটপাড়ায় মৃত্যু হয়েছে ২ তৃণমূলকর্মীর, গলসিতে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

জ্বলছে ভাটপাড়া। সূত্রের খবর, সোমবার রাতে ভাটপাড়ায় এক তৃণমূল কর্মীর বাড়ি লক্ষ্য করে বোমা ছোঁড়ে দুষ্কৃতীরা। ঘটনায় আহত হন মোট ৪ জন। তাঁদের ভাটপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে, মঙ্গলবার সকালে ২ তৃণমূল কর্মীর মৃত্যু হয়েছে বলে খবর। এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই ফের অশান্তি শুরু হয়েছে ভাটপাড়ায়। পরিস্থিতি সামাল দিতে নামানো হয়েছে র‍্যাফ এবং বিশাল পুলিশ বাহিনী।

অন্যদিকে সোমবার রাতে পূর্ব বর্ধমানের গলসির খানা জংশন স্টেশন থেকে বাড়ি ফিরছিলেন ৪ তৃণমূল কর্মী। আচমকা টাঙি-বাঁশ দিয়ে তাঁদের অপর চড়াও হয় বেশ কয়েকজন দুষ্কৃতী। পরে আহতদের উদ্ধার করে বর্ধমান মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হলে এক তৃণমূল কর্মীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। মৃত তৃণমূল কর্মীর নাম জয়দেব রায়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বাকি ৩ তৃণমূল কর্মীর অবস্থাও আশঙ্কাজনক। স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের অভিযোগ, রাতের অন্ধকারে বিজেপির দুষ্কৃতীরা হামলা চালিয়েছে। যদিও অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে পাল্টা তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের দিকে আঙুল তুলেছে বিজেপি।

শনিবার বসিরহাটের সন্দেশখালিতে বিজেপির ২ ও তৃণমূলের ১ কর্মীর মৃত্যুর পর এখন থমথমে পরিবেশ সেখানে। তৃণমূল ও বিজেপি, দুই পক্ষই দাবি করছে, তাদের একাধিক কর্মী নিখোঁজ।
রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে কেন্দ্র। সূত্রের খবর, রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী পশ্চিমবঙ্গের পরিস্থিতি নিয়ে একটি ৪৮ পাতার রিপোর্ট দিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে। এর আগে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে রাজ্যপাল ইঙ্গিত দিয়েছিলেন, কেন্দ্র চাইলে বাংলায় সংবিধানের ৩৫৬ ধারা জারি হতে পারে।

Comments
Loading...