দেশে আরও ছ’টি বুলেট ট্রেন আসছে, লোকসভায় ঘোষণা রেলমন্ত্রীর

মোদী সরকারের হাত ধরে আরও বুলেট ট্রেন আসছে? ভারতীয় রেলওয়ে মোট ছ’টি হাই-স্পিড রেল করিডর তৈরি করতে চলেছে। এ ছাড়া যাত্রীবাহী থেকে মালবাহী বেশ কিছু ট্রেনের গতি বাড়ানোর জন্য উদ্যোগ নিচ্ছে রেল। সম্প্রতি লোকসভায় বুলেট ট্রেন নিয়ে এমনই আভাস দিয়েছেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল ।
লোকসভায় একটি লিখিত প্রশ্নের জবাবে পীযূষ গোয়েল জানিয়েছেন, ২০১৯ সালের অগাস্টে মোদী সরকার মোট দুটি রেল প্রজেক্টের সংস্কারে ছাড়পত্র দিয়েছে। ১৬০ কিলোমিটার বেগে এই দুই রেল প্রজেক্টে ট্রেন চলবে। নিউ দিল্লি-হাওড়া রুট এবং নিউ দিল্লি-মুম্বই রুটের সংশ্লিষ্ট ট্রেনের গতি বাড়ানোর জন্য সংস্কারমূলক কাজ চলছে। গোয়েল আরও জানান, বর্তমানে মুম্বই-আহমেদবাদ হাই-স্পিড রেল (এইচএসআর) করিডর ভারতের একমাত্র হাই-স্পিড রেল করিডর, যার কাজ জাপান সরকারের আর্থিক ও প্রযুক্তি সহযোগিতায় চলছে। এ ছাড়া রেল মন্ত্রক মোট ছ’টি রুটের জন্য ডিটেলড প্রজেক্ট রিপোর্ট (ডিপিআর) তৈরি করছে হাই-স্পিড করিডরের লক্ষ্যে।
কোন কোন রুটে বুলেট ট্রেন ?
১) প্রথমেই রয়েছে দিল্লি থেকে বারাণসী পর্যন্ত ৮৬৫ কিলোমিটার দীর্ঘ হাই-স্পিড রেল করিডর। যা দিল্লি, নয়ডা, আগ্রা, কানপুর , লখনউ এবং বারাণসীর মধ্যে সংযোগ স্থাপন করবে।
২) দিল্লি-আহমেদাবাদ বুলেট ট্রেন প্রকল্প এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি দূরত্বের মধ্যে যোগাযোগ তৈরি করবে। দিল্লি থেকে জয়পুর, উদয়পুর হয়ে আহমেদাবাদ পর্যন্ত ৮৮৬ কিলোমিটার দূরত্বের এই হাই-স্পিড করিডরের কাজ শুরু হবে।
৩) বুলেট ট্রেনের প্রথম প্রকল্প মুম্বই-আহমেদাবাদের পর মুম্বই থেকে নাগপুর পর্যন্ত একটি হাই-স্পিড রেল করিডর শুরু হবে। ৭৫৩ কিলোমিটার দূরত্বের এই করিডর মুম্বই, নাসিক থেকে নাগপুর পর্যন্ত চলে যাবে।
৪) মুম্বই-নাগপুরের সঙ্গে মুম্বই থেকে আরও একটি বুলেট ট্রেন প্রকল্প রয়েছে। ৭১১ কিলোমিটার দীর্ঘ এই করিডর মুম্বই থেকে পুণে হয়ে হায়দরাবাদ চলে যাচ্ছে।
৫) এরপরে রয়েছে চেন্নাই-বেঙ্গালুরু-মাইশোর করিডর। দূরত্ব ৪৩৫ কিলোমিটার। এবং
৬) দিল্লি-অমৃতসর করিডর। ৪৫৯ কিলোমিটার দূরত্বের এই করিডর দিল্লি, চণ্ডীগড়, লুধিয়ানা, জলন্ধর ও অমৃতসরের মধ্যে সংযোগ স্থাপন করবে।
প্রসঙ্গত, ৫০৮ কিমি দীর্ঘ আহমেদাবাদ-মুম্বই হাই-স্পিড ট্রেন করিডর হল ভারতের প্রথম বুলেট ট্রেন প্রকল্প। ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে যৌথভাবে এই প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। আনুমানিক দু’ঘণ্টার মধ্যে আহমেদাবাদ থেকে মুম্বই পৌঁছে যাওয়া যাবে এই বুলেট ট্রেনে।
Comments
Loading...