ডিফেন্স এক্সপোর জন্য লখনউয়ে প্রায় ৬৪ হাজার গাছ কাটতে চলেছে যোগী সরকার

আগামী ৫ থেকে ৮ ফেব্রুয়ারি উত্তরপ্রদেশের রাজধানী লখনউতে হতে চলেছে ডিফেন্স এক্সপো। আর এর জন্যই নাকি উত্তরপ্রদেশের যোগী আদিত্যনাথের সরকার প্রায় ৬৪ হাজার গাছ কাটার পরিকল্পনা করেছে। গোমতী নদীর ধারে হনুমান সেতু থেকে নিশাতগঞ্জ সেতু এলাকা পর্যন্ত বিস্তীর্ণ অঞ্চলজুড়ে এক্সপোর বিভিন্ন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। আর তাই লখনউ ডেভেলপমেন্ট অথরিটি বা এলডিএ লখনউ নগর নিগমকে ওই এলাকার এই বিপুল সংখ্যক গাছ কেটে ফেলার নির্দেশ দিয়েছে। গাছ কেটে ওই এলাকা হিন্দুস্তান এরোনোটিক্স লিমিটেডের হাতে দ্রুত তুলে দিতে হবে বলেও নির্দেশ দিয়েছে এলডিএ।
এমনিতেই দেশের অন্যতম দূষিত শহর বলে পরিচিত লখনউ। এই অবস্থায় প্রশাসনের এই পরিকল্পনায় প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।  তবে এর সাফাই দিয়েছে লখনউ ডেভেলপমেন্ট অথরিটি। তাদের তরফে জানানো হয়েছে ডিফেন্স এক্সপো শেষ হলে সেখানে ফের নতুন গাছ বসানো হবে, প্রয়োজনে কিছু গাছ সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে অন্যত্র। এর জন্য লখনউ নগর নিগমের কাছে ৫৯ লাখ টাকাও দাবি করা হয়েছে।
জানা গিয়েছে, এলডিএ গোমতী নদীর অপর পারে কিছু গাছ নিয়ে গিয়ে বসানোর পরিকল্পনা করেছে।  কিন্তু বন দফতরের আধিকারিকরা এই পরিকল্পনায় প্রশ্ন তুলেছেন। তাঁদের মতে, বছরের এই সময়ে শীতের মরসুমে শুষ্ক পরিবেশে গাছ তুলে নিয়ে গিয়ে অন্যত্র বসালে গাছগুলির মৃত্যু হবে। ফলে লাভের লাভ কিছুই হবে না। লখনউ ডেভেলপমেন্ট অথরিটি নগর নিগমকে নির্দেশ দিয়েছে পরের বছর ১৫ জানুয়ারির মধ্যে ওই গোটা এলাকা পরিষ্কার করে ফেলতে হবে ও হ্যাল এর হাতে তুলে দিতে হবে।
এই ডিফেন্স এক্সপোতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশেকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

Comments
Loading...