লকডাউন ভাঙার অভিযোগে কলকাতায় গ্রেফতার আরও প্রায় ৭০০ মানুষ, সবাইকে ঘরে থাকার বার্তা পুলিশ কমিশনারের

লকডাউন অমান্য করে কেউ অপ্রয়োজনে রাস্তায় ঘুরে বেরালে তার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করার হুঁশিয়ারি দিলেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা।
করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে  কলকাতাবাসীর কাছে সিপি-র আবেদন, সবাই লকডাউন মেনে বাড়িতে থাকুন। বৃহস্পতিবার এ নিয়ে বেশ কয়েকটি ট্যুইট করেন তিনি। নিজস্ব ট্যুইটার হ্যান্ডেল থেকে একটি ট্যুইটে জানান, এদিন সকাল ১১ টা পর্যন্ত কলকাতা ট্র‍্যাফিক পুলিশ মোট ৫১ টি গাড়ি বাজেয়াপ্ত করে। লকডাউন অমান্য করে রাস্তায় নামার জন্য ওই গাড়ি চালকদের বিরুদ্ধে স্বতঃপ্রণোদিত এফআইআর দায়ের করেছে পুলিশ। তাই বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া বা অনুমতি ছাড়া কাউকে রাস্তায় বেরতে বারণ করেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার।
এদিন অন্য একটি ট্যুইটে অনুজ শর্মা জানান, বুধবার রাতে ৬৯৯ জনকে গ্রেফতার করা হয় লকডাউন না মেনে রাস্তায় বের হওয়ার জন্য। ১৫৫ জনের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাই প্রত্যেক কলকাতাবাসীর কাছে সিপি-র আবেদন, পুলিশের সঙ্গে সহযোগিতা করে বাড়িতে থাকুন। নাহলে এইভাবে আইনি পদক্ষেপ করতে বাধ্য হবে পুলিশ প্রশাসন।
সরেজমিনে পরিস্থিতি দেখার পাশাপাশি নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেল থেকেও প্রতিনিয়ত করোনা নিয়ে মানুষকে সচেতন হতে বার্তা দিচ্ছেন অনুজ শর্মা। ক’দিন আগে একটি কার্টুন পোস্ট করেন তিনি, সেখানে দেখা যাচ্ছে, সুপারম্যান ঘরে সোফায় বসে খবরের কাগজ পড়ছে। তাকে যখন বলা হয়েছে যে বাইরে গিয়ে করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে ফাইট করার জন্য, তখন সুপারম্যান তার জবাব দিয়েছে, আমি তাই করছি। এর অর্থ হল করোনা বিরুদ্ধে লড়াই করতে হলে আপনাকে ঘরে থাকতে হবে। এটাই অন্যতম উপায় এই মারণ ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করার।
পাশাপাশি, করোনা নিয়ে অপপ্রচার, ভুয়ো বার্তা দিলেও কঠোর পদক্ষেপ করার হুঁশিয়ারি দেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার। ইতিমধ্যেই গুজব ছড়ানোর অভিযোগে কলকাতার বিভিন্ন জায়গা থেকে বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Comments
Loading...