৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে ডিজিটাল রেশন কার্ডে বাধ্যতামূলক আধার সংযুক্তি

ডিজিটাল রেশন কার্ডে বাধ্যতামূলক হল আধার এবং ফোন নম্বর সংযুক্তিকরণ। পাঁচ বছর বয়সের ঊর্ধ্বে যে কোনও নাগরিকের নতুন রেশন কার্ডে থাকতে হবে আধার নম্বর। সম্প্রতি এমনই বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে খাদ্য দফতর। তাতে বলা হয়েছে পরিবারের প্রত্যেক সদস্যের ডিজিটাল রেশন কার্ডের সঙ্গে আধার যোগ বাধ্যতামূলক। 

জানা গিয়েছে, অনলাইনের সঙ্গে অফলাইনেও বিভিন্ন আবেদনের ফর্ম সংশোধন করেছে খাদ্য দফতর।রেশন সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে আবেদন করার জন্য ৩ থেকে ১০ নম্বর ফর্ম আছে। পরিবারের সবার নতুন কার্ডের জন্য ৩ নম্বর এবং কোনও একজন সদস্যের জন্য ৪ নম্বর ফর্ম জমা দিতে হয়। দু’টি ফর্মেই আধার কার্ড, ভোটার কার্ড, মোবাইলের নম্বর দেওয়া বাধ্যতামূলক। দিতে হবে আধার কার্ডের প্রতিলিপি কপি, দু’টি মোবাইল নম্বর, হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর এবং ই-মেইল আইডি। কোন রেশন ও কেরোসিন ডিলারের কাছ থেকে পরিবারটি খাদ্যসামগ্রী ও কেরোসিন নিতে চাইছে, নাম ও নম্বর উল্লেখ করতে হবে। লকডাউনের আগে পর্যন্ত রেশন দোকানের ই-পাশ যন্ত্রের মাধ্যমে ৭ কোটির বেশি গ্রাহকের আধার সংযুক্তি হয়েছে। আবার করোনায় যে গ্রাহকদের আধার ও মোবাইল নম্বর সংযুক্তকরণ হয়নি, তাঁদের জন্য ১১ নম্বর ফর্ম আনা হয়েছে।

এদিকে জাতীয় খাদ্য সুরক্ষা প্রকল্পে রেশন কার্ড গ্রাহকদের আধার নম্বর সংযুক্তিকরণের কাজ সম্পূর্ণ করতে আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় দিয়েছে কেন্দ্র। পশ্চিমবঙ্গ সরকারও চাইছে, রাজ্য খাদ্যসুরক্ষা প্রকল্পের আওতায় থাকা রেশন গ্রাহকদের আধার নম্বর সংযুক্ত করা হোক।পাশাপাশি মোবাইল নম্বর দেওয়া থাকলে ওটিপির মাধ্যমে রেশনও তোলা যাবে। গোটা প্রক্রিয়ায় স্বচ্ছতা আসবে।

Comments
Loading...