“এটা কোনও খুশির এবং positive ভিডিও নয়…,” লিখে ইনস্টাগ্রামে ভিডিও পোস্ট আমির কন্যা ইরার

মানুষ বাইরে থেকে যতটা হাসিখুশি থাকে, অন্তর থেকে ততটাই বিষাদ বহন করে। আপাত দৃষ্টিতে দেখে বোঝা সম্ভব নয় মানুষের মনের কথা। মানুষের জীবনের হতাশা, অবসাদ একটি ভয়ঙ্কর অধ্যায়। মনে হতাশা দানা বাঁধলে আত্মঘাতীর রূপ নিতে পারে। এবার সেই অবসাদেরই শিকার হলেন আমির খানের কন্যা ইরা খান। সম্প্রতি, একটি ইনস্টাগ্রামে ভিডিও পোস্ট করে এমনই একটি বার্তা দিলেন ইরা।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Ira Khan (@khan.ira)

ভিডিওটি শেয়ার করে তার ক্যাপশনে লিখলেন, “TRIGGER WARNING: It’s not a happy positive video. It’s not an unhappy, negative video either. But I’m… blah and if you’re low, it may or may not be the best things to watch. You be the judge. / And clearly I mumble. A lot. Will be more conscious next time.” অর্থাৎ এটি একটি খুশি ইতিবাচক ভিডিও নয়, আবার এটি কোন অখুশি নেতিবাচক ভিডিও নয়। আর বাকিটা অস্পষ্ট রেখে বিচারের জন্য ছেড়ে দিয়েছেন নেটিজনদের হাতে। ভিডিওতে তিনি বলেন, নিয়মিত ভিডিও পোস্ট করে অনুরাগীদের পুরো বিষয়টা বুঝাতে চাইছিলেন। নিজের মানসিক অবসাদকে সে আর লুকিয়ে রাখতে পারছিলেন না। অবসাদ মাখানো সুরে নিজের পরিস্থিতির কথা বললেন, “আমি কাজে যেতাম। কাজ করেই যেতাম। বাড়ি ফিরে কাঁদতে কাঁদতে ঘুমিয়ে পড়তাম। পরের দিন সকালবেলা উঠে ফের কাজে যেতাম।”

সম্প্রতি আমিরের বাড়িতে বিবাহের অনুষ্ঠান ছিল। আমিরের ভাইয়ের ছেলে জাইন খানের বিয়ে হয়। সেখানেই সেজেগুজে অন্যরকম ইরাকে দেখতে পাওয়া যায়। কিন্তু যতটা হাসিখুশি লাগছিল তাঁকে ততটাই কি সে খুশি ছিলেন? গত বছর বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস ইরা খান প্রকাশ করেছিলেন যে তিনি গত চার বছরেরও বেশি সময় ধরে হতাশার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন।

Comments
Loading...