অভিজিৎ ব্যানার্জির নামে কী উদ্দেশ্যে ভুয়ো ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট! সত্যতা সামনে আনলেন মহুয়া মৈত্র, প্রকাশক চিকি সরকার

করোনা আতঙ্কে ত্রস্ত দুনিয়াতেও ঘাটতি নেই ফেক নিউজে। দুনিয়াজুড়ে বিভিন্ন আইটি সেল অ্যাক্টিভ ভুয়ো খবর ছড়াতে। এবার তারই ফাঁদে নোবেলজয়ী বাঙালি অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক ব্যানার্জিও।
৫ মে, মঙ্গলবার বিকেলে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে একটি খবর, অভিজিৎ ব্যানার্জি অবশেষে ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট খুলেছেন। এতদিন তিনি ট্যুইটারে ছিলেন না। মুহূর্তের মধ্যে ফলোয়ার বাড়তে শুরু করে নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদের ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে। স্ত্রী এস্থার ডুফলোর সঙ্গে ছবি দিয়ে অ্যাকাউন্টটি খোলা হয়। যদিও বুধবার সকালেই স্পষ্ট হয়ে গেল এই ট্যুইটার অ্যাকাউন্টটি ভুয়ো! অভিজিৎ ব্যানার্জি কোনও ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট খোলেননি।
কিন্তু নোবেল জয়ের এতদিন বাদে হঠাৎ এই মুহূর্তে তাঁর নামে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খোলা হল কেন? এর পিছনে কি কোনও রাজনীতি রয়েছে? এই প্রশ্ন উঠছে, কারণ, কোভিড মোকাবিলায় সম্প্রতি অভিজিৎ ব্যানার্জি যুক্ত হয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের গঠিত কমিটিতে। শুধু তাই নয়, মঙ্গলবারই সোশ্যাল মিডিয়া ইন্টারভিউয়ে রাহুল গান্ধীর মুখোমুখি হয়েছিলেন অভিজিৎ ব্যানার্জি। অভিজিৎ ব্যানার্জির নামে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খোলার ‘সময়’ নিয়ে আরও প্রশ্ন উঠছে, কারণ, কোভিড ও লকডাউন পরিস্থিতি মোকাবিলায় ভারত সরকার যথেষ্ট কাজ করছে না বলে সম্প্রতি জানিয়েছেন তিনি।
কীভাবে জানা গেল অভিজিৎ ব্যানার্জির ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট ভুয়ো?

বুধবার সকালে তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র ট্যুইট করেন, নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক ব্যানার্জির তরফ থেকে জানাতে চাই, তিনি ট্যুইটারে নেই এবং তাঁর নামে খোলা দুটি অ্যাকাউন্টই ভুয়ো। ট্যুইটার কর্তৃপক্ষকে এ বিষয়ে অভিযোগও জানানো হয়েছে।

একইভাবে নেটিজেনদের কাছে নোবেলজয়ীর নাম করে ভুয়ো ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট খোলার বিষয়টি সোশ্যাল মিডিয়ায় জানান অভিজিৎ ব্যানার্জির সাম্প্রতিক বই Good Economics in Hard Times এর প্রকাশক জাগরনট বুকসের প্রতিষ্ঠাতা চিকি সরকার।

এর আগেও নোবেলজয়ীকে নিয়ে প্যারোডি অ্যাকাউন্ট তৈরি হয়েছে। কিছুদিনের মধ্যে নোবেলজয়ীকে বিবৃতি দিয়ে বলতে হয়েছে, সেই অ্যাকাউন্টের সঙ্গে তাঁর কোনও যোগ নেই। এবার ফের একবার সোশ্যাল দুনিয়ায় ভাইরাল অভিজিৎ বিনায়ক ব্যানার্জির ভুয়ো ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট।

Comments
Loading...