অভিরূপ সরকার: কাঁধ থেকে একটা বড় দায়িত্ব নামল, আমি মনে করি না সরকারি কর্মচারীরা বঞ্চিত হয়েছেন

অবশেষে বেতন কমিশনের সুপারিশ মেনে সরকারি কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধির কথা ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। শুক্রবার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়াম থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিয়েছেন, আগামী জানুয়ারি মাস থেকে চালু হবে নতুন বেতন। মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণার পর সামগ্রিকভাবে খুশি রাজ্যের সরকারি কর্মচারীরা। যদিও কিছু ভিন্নমতও রয়েছে। ক্ষোভ প্রকাশও করেছেন সরকারি কর্মচারীদের একাংশ। কিন্তু কী বলছেন বেতন কমিশনের চেয়ারম্যান অর্থনীতিবিদ অভিরূপ সরকার?

প্রশ্ন: গত কয়েক বছরে সরকারি কর্মচারীদের মধ্যে বোধহয় সবচেয়ে রাজ্যের সবচেয়ে সমালোচিত এবং নিন্দিত অর্থনীতিবিদের নাম অভিরূপ সরকার। অবশেষে আপনার সুপারিশ সরকার গ্রহণ করার কথা ঘোষণা করল। কী বলবেন?

অভিরূপ সরকার: কী আর বলব। তবে একটা কথা বলতে পারি, কাঁধ থেকে একটা বড় দায়িত্ব নামল। তাই অনেকটাই স্বস্তি লাগছে। আমি মনে করি, আমাদের সুপারিশে সরকারি কর্মচারীদের খুশি হওয়ার যথেষ্ট কারণ আছে। কেউ কেউ বিভিন্ন প্রশ্ন তুলছেন বটে, কিন্তু আমি মনে করি না সরকারি কর্মচারীরা কোনওভাবে বঞ্চিত হয়েছেন। কারণ, কমিশনের কাজ শুরু করার পর আমার প্রথম থেকেই উদ্দেশ্য ছিল, কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের মতোই বৃদ্ধির কাঠামোটা রাখতে হবে। আমি খুশি যে, তা করতে পেরেছি এবং সরকার তা মেনেও নিয়েছে। তাই সরকারি কর্মচারীদের নিজেদের বঞ্চিত ভাবার কোনও কারণ নেই।

প্রশ্ন: কিন্তু অনেকেই নানা প্রশ্ন তুলছেন এবং বলছেন এই সুপারিশের মধ্যে ধোঁয়াশা রয়েছে।

অভিরূপ সরকার: ধোঁয়াশার কোনও প্রশ্নই নেই। ধরুন, কারও বেসিক ছিল ১০০ টাকা। তিনি তার সঙ্গে ১২৫ শতাংশ ডিএ পেতেন। সুতরাং ডিএ হল ১২৫ টাকা। দুটো মিলে হল ২২৫ টাকা। এর সঙ্গে বেসিকের ১৫ শতাংশ হিসেবে ১৫ টাকা পেতেন হাউস রেন্ট। অর্থাৎ, ১০০ টাকা বেসিক হলে সব মিলিয়ে পেতেন ২৪০ টাকা।
এখন যেটা হল তা অত্যন্ত স্বচ্ছ। আগের বেসিক এবং ডিএ মিলে ছিল ২২৫ টাকা। সেটাকে রেখে পে কমিশন তার ওপর ১৪. ২ শতাংশ বৃদ্ধি সুপারিশ করল। এর ফলে তা বেড়ে হল ২৫৭ টাকা। তার সঙ্গে আমরা কেন্দ্রীয় সরকারের নীতিকেই মাপকাঠি ধরে হাউস রেন্ট করলাম ১২ শতাংশ। (কেন্দ্রীয় সরকার ৩০ শতাংশ থেকে ২৪ শতাংশ করেছে।) ২৫৭ টাকার সঙ্গে হাউস রেন্ট যুক্ত করে হবে ২৮৭ টাকা। সব মিলিয়ে ১০০ টাকা যাঁর বেসিক ছিল তিনি আগে পেতেন ২৪০ টাকা, এখন বর্ধিত বেতন হবে ২৮৭ টাকা।

প্রশ্ন: আপনাদের এই সুপারিশ সমস্ত সরকারী কর্মচারীর ক্ষেত্রেই লাগু হবে?

অভিরূপ সরকার: হ্যাঁ। এখন পশ্চিমবঙ্গে সরাসরি সরকারি কর্মচারী রয়েছেন প্রায় সাড়ে ৩ লক্ষ। এর বাইরে প্রায় ৫ লক্ষ শিক্ষক এবং পুরসভা, বিভিন্ন বোর্ড মিলিয়ে পুরো সংখ্যাটা প্রায় ১০ লক্ষ। সবারই বেতন বৃদ্ধি হবে। তাছাড়া আমি আরও একটা ব্যাপারে খুশি, সরকার কিন্তু ২০১৬ সালের ১ লা জানুয়ারি থেকে নোশনাল এফেক্ট দেবে। ফলে আমি আবারও বলছি, সরকারি কর্মচারীদের বঞ্চিত বলে মনে করার কোনও কারণ নেই।

Comments
Loading...