তৃণমূল ভাঙ্গিয়ে দল ভরতে হচ্ছে! দাম নেই পুরনো কর্মীদের, পৈলান থেকে বিজেপিকে কটাক্ষ অভিষেকের

আগে সোনার ভারত করে দেখাও, তারপর সোনার বাংলার কথা ভেবো

তৃণমূল ভেঙ্গে দল ভরতে হচ্ছে আর স্বপ্ন দেখছেন তাদের দিয়ে সোনার বাংলা গড়ার! ঠিক এই ভাষাতেই অমিত শাহকে বিঁধলেন অভিষেক ব্যানার্জি। দক্ষিণ ২৪ পরগনার পৈলানের কর্মিসভা থেকে ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জির খোঁচা, দলবদলুদের বিমান ভাড়া করে দিল্লি নিয়ে যেতে হচ্ছে আর বিজেপির পুরনো নেতা-কর্মীদের দাম নেই। 

কর্মীরাই দলের রত্ন, সভা থেকে বলেন তৃণমূল যুব সভাপতি অভিষেক। 

২০১৯-এ লোকসভা ভোটের বিধানসভাওয়ারি ফল বলছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার সবকটি বিধানসভায় তৃণমূল এগিয়ে। এদিন সে কথা উল্লেখ করে অভিষেক বলেন, একুশের ভোটেও ৩১ টি আসন চাই। বিজেপির সোনার বাংলা প্রতিশ্রুতির জবাবে তৃণমূল সাংসদের প্রশ্ন, বিজেপি শাসিত বাকি রাজ্যগুলি কেন সোনার রাজ্য হয়নি? বলেন, আগে সোনার ভারত করে দেখাও, তারপর সোনার বাংলার কথা ভেবো। 

ভিড়ে ঠাঁসা সভা থেকে অভিষেক বলেন, লড়াইটা ভোটে জেতার নয়, লড়াইটা বাংলাকে রক্ষা করার লড়াই। বাংলার সংস্কৃতিকে রক্ষার। সাগরের সভা থেকে অমিত শাহ ঘোষণা করেছিলেন, মৎস্যজীবীদের বছরে ৬ হাজার টাকা দেওয়া হবে, এদিন তার জবাবে অভিষেক বলেন, আগে টাকা দিন, তারপর কথা বলুন। তাঁর দাবি, তৃণমূল রিপোর্ট কার্ড দেখিয়ে জনতার দরবারে ভোট চাইতে গেছে, আপনারা ৭-৮ বছর কেন্দ্রে সরকারে আছেন, রিপোর্ট কার্ড প্রকাশ করুন। লড়াইটা তথ্য পরিসংখ্যানের  ভিত্তিতে হোক। অভিষেকের বিজেপি নেতৃত্বকে চ্যালেঞ্জ, যে কোনও চ্যানেলে যে কোনও অনুষ্ঠানে আমার সঙ্গে বিজেপি নেতারা বসুন, কোন সরকার কত উন্নতি করেছে তা নিয়ে আলোচনা হোক। কথা দিলাম, ১০-০ হারাবো। 

এদিন যুব তৃণমূল সভাপতি ফের দাবি করেন, একুশের ভোট তৃণমূল ২৫০ এর বেশি আসন পাবে। তাঁর অভিযোগ, স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিয়ে বিজেপি নেতারা ভ্রান্ত প্রচার করছেন। অভিষেকের কটাক্ষ, দিলীপ ঘোষের পরিবার স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের জন্য লাইন দিচ্ছে, আর দিলীপ বাবু স্বাস্থ্যসাথীর সমালোচনা করছেন!

Comments
Loading...