আমার জন্য রোজ অভিষেককে কথা শুনতে হয়, খারাপ লাগে, পৈলানে বললেন মমতা

ক্ষমতা থাকে ওর বিরুদ্ধে দাঁড়াও তারপর আমাকে চ্যালেঞ্জ করতে এস

বাংলা দখলকে পাখির চোখ করে ঝাঁপিয়ে পড়েছে বিজেপি। মোদী থেকে শুরু করে দু’দিন আগে বিজেপিতে যোগ দেওয়া শুভেন্দু, শোভন, রাজীব সকলেরই আক্রমণের লক্ষ্য অভিষেক ব্যানার্জি। দক্ষিণ ২৪ পরগনার সাগর থেকে অমিত শাহের বক্তব্যেও সেই ভাইপোর কথা। এবার সেই দক্ষিণ ২৪ পরগনায় দাঁড়িয়েই অমিত শাহ সহ বিজেপি নেতৃত্বকে তীব্র আক্রমণ শানালেন মমতা। বললেন, রোজ আমার জন্য ওকে (পড়ুন অভিষেক) কথা শুনতে হয়। আমার খারাপ লাগে। তারপরই অভিষেক ব্যানার্জির রাজনীতিতে আসার ঘটনা বর্ণনা করেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি জানান, তিনি নিজে চেয়েছিলেন অভিষেকে রাজ্যসভায় পাঠাতে। কিন্তু অভিষেক মানুষের ভোটে জিতে লোকসভায় যেতে চেয়েছিল, জানান মমতা ব্যানার্জি। এদিন পরিবারতন্ত্র নিয়েও যাবতীয় আক্রমণের জবাব দেন মমতা। বলেন, ইন্দিরা যখন হেরে গেলেন তখন আমরা ৬ ভাই, ২ বোন মিলে মিছিল করেছিলাম। কই তখন তো পরিবারতন্ত্রের কথা ওঠেনি। আমার পরিবারের সবাই রাজনীতি করে কিন্তু বড়ো পদে নেই, বলেন মমতা। 

হাজরা মোড়ে একবার নিগৃহীত হন মমতা ব্যানার্জি। মাথায় ব্যান্ডেজ নিয়ে অনেকদিন থাকতে হয়েছিল তৎকালীন কংগ্রেস নেত্রীকে। মমতা বলেন, সেই ব্যান্ডেজ দেখে ২ বছরের অভিষেক কংগ্রেসের পতাকা নিয়ে মিছিল করত আর স্লোগান দিত, দিদিকে মারলে কেন জবাব চাই, জবাব দাও। এত উৎসাহ দেখে ওকে রাজনীতিতে আনি, বলেন মমতা।

এদিন চ্যালেঞ্জের সুরে মমতা বলেন, খালি ভাতিজা আর ভাতিজা… ক্ষমতা থাকে ওর বিরুদ্ধে দাঁড়াও। তারপর আমাকে চ্যালেঞ্জ করতে এস। 

অভিষেক ব্যানার্জিকে মারার চক্রান্ত হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন মমতা। তিনি বলেন, এই জায়গায় দাঁড়িয়ে রাজনীতি করা এত সহজ না। এই প্রসঙ্গেই মমতা বলেন, প্রতিদিন আমার জন্য অভিষেককে কথা শুনতে হয়। মমতা ব্যানার্জি বলেন, আমাকে যা খুশি বলো কিন্তু আমার বাড়ির ছোটদের এবং বউদের নামে কিছু বলো না। সব জিনিসের একটা সীমা থাকে বলেন মুখ্যমন্ত্রী।

Comments
Loading...