টিআরপি জালিয়াতির অভিযোগকে কেন্দ্র করে রাজ্যের নিউজ চ্যানেলগুলোর মধ্যে সংঘাত এবার প্রকাশ্যে।
রাজ্যের এক নম্বর নিউজ চ্যানেল ABP ANANDA র বিরুদ্ধে এবার টিআরপি জালিয়াতির অভিযোগে নিয়ামক সংস্থা BARC কে চিঠি দিল কলকাতা টিভি।
গত ১২ অক্টোবর, সোমবার TheBengalStory জানিয়েছিল, এবিপি আনন্দ একাধিক চ্যানেলের বিরুদ্ধে টিআরপি জালিয়াতির অভিযোগে BARC কে চিঠি দিয়েছে। এবার টিআরপি জালিয়াতির পাল্টা অভিযোগ তুলল কলকাতা টিভি। তাতে নির্দিষ্ট করে এবিপি আনন্দের দিকে অভিযোগের আঙুল।

 

পড়ুন: বাংলা নিউজেও TRP জালিয়াতি? এবিপি আনন্দর চিঠি নিয়ামক সংস্থা BARC কে, অভিযোগ একাধিক চ্যানেলের বিরুদ্ধে 

 

মুম্বই পুলিশ অর্ণব গোস্বামীর রিপাবলিক টিভি সহ ৩ টি চ্যানেলের বিরুদ্ধে টিআরপি জালিয়াতির অভিযোগে তদন্ত শুরু করেছে। প্রশ্ন উঠছে, এবার কি একই কাজে নামতে হবে কলকাতা পুলিশকেও? কারণ, কলকাতা টিভি কর্তৃপক্ষ জানাচ্ছে, তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে BARC কোনও ব্যবস্থা না নিলে তারা আইনি পথে যাবে।
সূত্রের খবর, ১৩ অক্টোবর, মঙ্গলবার কলকাতা টিভির কর্ণধার ও সম্পাদক কৌস্তুভ রায় চিঠি দেন ব্রডকাস্ট অডিয়েন্স রিসার্চ কাউন্সিল বা BARC কে। সেখানে অভিযোগ করা হয়, প্রতি বৃহস্পতিবার যে টিআরপি রেটিং প্রকাশ করে BARC, তাতে কলকাতা টিভির পারফর্মেন্সের সঠিক প্রতিফলন হচ্ছে না। কয়েকটি ক্ষেত্রে প্রতিদ্বন্দ্বী অন্যান্য বাংলা নিউজ চ্যানেলের অস্বাভাবিক বৃদ্ধির কথাও লেখা হয়েছে চিঠিতে। বলা হয়েছে, টিআরপি সংগ্রহের মেশিনে কারচুপির মাধ্যমে কৃত্রিমভাবে কোনও কোনও চ্যানেলের টিআরপি বাড়িয়ে নেওয়া হচ্ছে বলে সন্দেহ করছে কলকাতা টিভি। এই সন্দেহ নিরসনে BARC কে তদন্তের আর্জি জানিয়েছে কলকাতা টিভি।
ঠিক কী অভিযোগ কলকাতা টিভির?
BARC কে পাঠানো চিঠিতে কলকাতা টিভির অভিযোগ, এ বছর ৩৩ থেকে ৩৯ তম সপ্তাহের মধ্যে একটি নির্দিষ্ট মানদণ্ডে কলকাতা টিভির ১৯ শতাংশ বৃদ্ধি হয়েছে বলে জানিয়েছে BARC। কিন্তু অ্যাভারেজ টাইম স্পেন্ট ও সাপ্তাহিক জিআরপিতে তার কোনও প্রতিফলন তো নেই-ই, উল্টে ৩৩ তম সপ্তাহে কলকাতা টিভির জিআরপি যেখানে ছিল ৩০.৪৪ সেখানে ৩৯ তম সপ্তাহে তা কমে হয়েছে ২৫.২৪। তাদের প্রশ্ন, একই সঙ্গে বৃদ্ধি ও হ্রাস কী করে সম্ভব?
এরপর এবিপি আনন্দের নাম করে BARC এর কাছে নালিশ জানিয়েছে কলকাতা টিভি। সকাল ও সন্ধ্যায় এবিপি আনন্দের অ্যাভারেজ টাইম স্পেন্ট কলকাতা টিভির চেয়ে অনেক কম। কিন্তু তা সত্ত্বেও কীভাবে এবিপি আনন্দের অ্যাভারেজ রিচ পার্সেন্টেজ বেড়ে চলেছে? তাহলে কি নির্ণয় প্রক্রিয়ায় কারসাজি করছে এবিপি আনন্দ, নিরপেক্ষ তদন্ত করে দেখুক BARC। চিঠিতে আর্জি কলকাতা টিভির।
প্রসঙ্গত, গত ২৫ সেপ্টেম্বর এবিপি আনন্দ BARC কে চিঠি দিয়ে অভিযোগ করেছে, ধারাবাহিকভাবে তারা এক নম্বরে থাকলেও, কোনও দর্শক গড়ে কতক্ষণ চ্যানেল দেখছেন, এই সূচকে তারা দুই বা তিন নম্বরে। তা কীভাবে হয়? এমনকী ৩৯ তম সপ্তাহের (২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ থেকে ২ অক্টোবর পর্যন্ত) রেটিংয়েও এবিপি আনন্দর মার্কেট শেয়ার বাকিদের ধরাছোঁয়ার বাইরে (৪১%) হলেও, প্রতি দর্শক কত সময় ব্যয় করেছেন ওই চ্যানেল দেখতে (TSPV), সেই মানদণ্ডে দু’নম্বরে তারা। সেখানে এক নম্বরে কলকাতা টিভি।
এবার কলকাতা টিভির পাল্টা অভিযোগ, এবিপি আনন্দ অনেক পুরনো অনুষ্ঠানের পুনঃসম্প্রচার করে। BARC এর রিপোর্ট অনুযায়ী পুরনো অনুষ্ঠানের পুনঃসম্প্রচারেও তারা এত বেশি টিআরপি পায়, যা নতুন অনুষ্ঠানেও জোটে না। কীভাবে পুরনো অনুষ্ঠান এত টিআরপি পায়, প্রশ্ন কলকাতা টিভির। কৌস্তুভ রায় জানান, গত বছরের ডিসেম্বর মাস থেকে আমরা ধারাবাহিকভাবে BARC কে বহু চিঠি দিয়েছি টিআরপি কারচুপির অভিযোগ তুলে। BARC যদি কোনও ব্যবস্থা না নেয়, তবে আদালতের দরজা খোলা আছে। আমরা আইনি ব্যবস্থা নেব।
বাংলায় সকলের নজর ছিল যে নিউজ চ্যানেলগুলোর দিকে, টিআরপি জালিয়াতির অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগকে কেন্দ্র করে এখন তারাই খবরের কেন্দ্রে। মুম্বই পুলিশের তদন্ত বেআব্রু করেছে সর্বভারতীয় চ্যানেলের ভূমিকাকে। তার রেশ ধরে এবার প্রশ্নের মুখে এরাজ্যেরও নিউজ চ্যানেলের বিশ্বাসযোগ্যতা।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us