৫৩ বছর বয়সে প্রয়াত অভিনেতা ইরফান খান, ২০১৮ সালে কোলন ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছিলেন

প্রয়াত অভিনেতা ইরফান খান। মঙ্গলবার বিকেলে ইরফান খানের গুরুতর অসুস্থতার খবর সামনে আসে। জানা যায়, মুম্বইয়ের কোকিলাবেন ধীরুভাই আম্বানী হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে তাঁকে। রাতেই রটে যায় তাঁর মৃত্যু হয়েছে। যদিও বুধবার ভোরে
তাঁর মুখপাত্র জানান, ইরফানের শারীরিক অবস্থা নিয়ে কিছু মানুষ গুজব ছড়াচ্ছে, যা অত্যন্ত হতাশাজনক ঘটনা। তবে দুপুর ১১ টা নাগাদ সমস্ত লড়াই থেমে গেল এই শক্তিশালী অভিনেতার।
কোলনে ইনফেকশন নিয়ে মঙ্গলবার হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ৫৩ বছর বয়সী অভিনেতাকে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাঁর হাসপাতালে ভর্তির খবর জানান তাঁর মুখপাত্র। তিনি জানিয়েছিলেন, ইরফানের কোলনে ইনফেকশন হয়েছে। আপাতত তিনি ICU তে রয়েছেন। সারারাত অত্যন্ত ক্রিটিকাল ছিলেন তিনি। অভিনেতার স্ত্রী সুতপা সিকদার ও তাঁদের দুই সন্তান, বাবিল ও অয়ন খান সারারাত ছিলেন হাসপাতালে।
২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইরফান খানের নিউরো এন্ডোক্রিন টিউমারে আক্রান্ত হওয়ার খবর সামনে আসে।এরপর দীর্ঘ সময় লন্ডনে চিকিৎসা চলে ‘লাঞ্চবক্স’, ‘পিকু’ ছবির অভিনেতার। গত বছর এপ্রিলে দেশে ফেরেন তিনি। ক্যানসার যুদ্ধে জয়ী হলেও ইরফান নিয়মিত চিকিৎসার মধ্যেই ছিলেন। কিন্তু মঙ্গলবার আচমকাই তাঁর শারীরিক পরিস্থিতি খারাপ হয়।
এর মধ্যে গত শনিবার ইরফানের মায়ের মৃত্যু হয়। জয়পুরের বেনিওয়াল কান্ত কৃষ্ণ কলোনিতে থাকতেন তিনি। যদিও লকডাউনের জন্য মায়ের অন্ত্যেষ্টিতে যোগ দিতে পারেননি অভিনেতা।
শারীরিক অসুস্থতার জন্যই দীর্ঘ সময় সিনেমা পর্দা থেকেও দূরে ছিলেন এই অভিনেতা। বক্স অফিসে ইরফানের কামব্যাক ছবি ছিল ‘আংরেজি মিডিয়াম’। গত ১৩ মার্চ এই ছবি মুক্তি পেলেও লকডাউন শুরুর ফলে সিনেমা হলে দিন কয়েক প্রদর্শিত হয় এই ছবি।

Comments
Loading...