ভাইজান ইস্যুতে আনন্দ শর্মাকে জবাব অধীরের, রিট্যুইট সেলিমের, খোঁচা মালব্যের

আব্বাসের সঙ্গে অধীরের একইমঞ্চে থাকা নিয়ে ট্যুইট যুদ্ধে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। কংগ্রেস নেতা আনন্দ শর্মার সঙ্গে ট্যুইট যুদ্ধে জড়িয়েছেন প্রদেশ সভাপতি অধীর চৌধুরী। আনন্দ শর্মাকে দেওয়া অধীরের ট্যুইট-জবাব রিট্যুইট করেছেন মহম্মদ সেলিম। এবার ট্যুইট যুদ্ধে নয়া অন্তর্ভুক্তি অমিত মালব্য।

প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতিকে টুইটে বিঁধলেন বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য। আনন্দ শর্মাকে দেওয়া অধীর চৌধুরীর টুইট তুলে ধরে তিনি বলেছেন, আনুগত্যের বোঝা এমন যে, একজন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে মঞ্চে অপমানিত হতে হচ্ছে! তবুও তিনি অপমানের সঙ্গে বেঁচে আছেন সাম্প্রদায়িক উপাদান রক্ষা করার জন্য।

রবিবার ব্রিগেডের মঞ্চে বাম-কংগ্রেসের সঙ্গে আইএসএফের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য আব্বাস সিদ্দিকির উপস্থিতি নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে চর্চা চলছে। অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন বাম, কংগ্রেসের মত দল কেন আব্বাসের সাম্প্রদায়িক শক্তির সঙ্গে হাত মেলালো?এই ইস্যুতেই অধীরকে খোঁচা দিয়ে ট্যুইট করেন কংগ্রেস নেতা আনন্দ শর্মা। সোমবার কংগ্রেস নেতা আনন্দ শর্মা একাধিক টুইটে অধীর চৌধুরীকে আক্রমণ করে বলেন, আইএসএফ-এর মত সাম্প্রদায়িক শক্তির সঙ্গে জোট কংগ্রেসের মূল আদর্শের পরিপন্থী। গান্ধীবাদ ও নেহরুবাদ ধর্মনিরপেক্ষ। সাম্প্রদায়িকতাই কংগ্রেসের আত্মা। এই নিয়ে একাধিক টুইট বাণে অধীরকে বিদ্ধ করেন আনন্দ শর্মা।

উত্তর দিতে দেরি করেননি অধীর চৌধুরীও। পরপর ৪ টি টুইট করেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি। তিনি জানান, বামফ্রন্ট পশ্চিমবঙ্গে ধর্মনিরপেক্ষ জোটকে নেতৃত্ব দিচ্ছে কংগ্রেস যার অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। আমরা বিজেপির সাম্প্রদায়িককে পরাজিত করতে বদ্ধপরিকর। এছাড়াও তিনি লেখেন, আমরা আমাদের দাবি করা আসনগুলি পেয়েছি। বামেরা তাঁদের থেকে আইএসএফকে আসন ছেড়ে দিয়েছে। তিনি আনন্দ শর্মাকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনি যেভাবে ধর্মনিরপেক্ষ, গণতান্ত্রিক জোটকে সাম্প্রদায়িক বলছেন, তাতে মনে হচ্ছে আপনি বিজেপির অ্যাজেন্ডা পূরণ করতে বদ্ধপরিকর।

এবার একই দলের দুই নেতার বিতণ্ডার মধ্যে ঢুকে পড়লেন অমিত মালব্য। যদিও তাঁর অন্তর্ভুক্তিকে কোনও গুরুত্ব দিতেই নারাজ প্রদেশ কংগ্রেস শিবির।

Comments
Loading...