সৌরভ ভাবছেন! লক্ষ্মী নেই! বাংলার আর কোন কোন ক্রিকেটার নামছেন রাজনীতিতে?

২২ গজ ছেড়ে রাজনীতির ময়দানে কারা?

আর কয়েক দিনের মধ্যেই ঘোষণা হয়ে যাবে রাজ্যের অন্যতম হাইভোল্টেজ ভোটের দিনক্ষণ। বাংলা দখলকে পাখির চোখ করে ঝাঁপিয়েছে বিজেপি, অন্যদিকে ক্ষমতা ধরে রাখতে মরিয়া তৃণমূল। এই প্রেক্ষিতে ভোটমুখী বাংলায় রাতারাতি প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠেছে রাজনীতির বাইরের কিছু নাম।
সৌরভ গাঙ্গুলিকে বিজেপি মুখ্যমন্ত্রীর মুখ করতে চায়, এই গুঞ্জন বেশ কিছুদিন হল যেন খানিকটা স্তিমিত। কিন্তু সৌরভ-বিজেপি যোগ নিয়ে জল্পনার অন্ত নেই। বুকে ৩ টি স্টেন্ট বসার পর আপাতত ঘরবন্দি মহারাজ। সূত্রের খবর, নিজে কারও সঙ্গে খুব একটা যোগাযোগ রাখছেন না সৌরভ। বেহালার গাঙ্গুলি বাড়ির সবার নজর এখন সৌরভের ফিট হওয়ার দিকে। ফলে ভোটের ঠিক মুখে সৌরভ গাঙ্গুলি এক প্রকার নিষ্ক্রিয়। সৌরভের ঘনিষ্ঠ মহলের যদিও দাবি, দাদা এখনও জল মাপছেন। ভেবে দেখার চেষ্টা করছেন, রাজনীতিতে নামা আদৌ উচিত হবে কিনা। খতিয়ে দেখছেন পক্ষে-বিপক্ষের মতামত।
রাজ্য ভোটের বাজারে আরও একটি উল্লেখযোগ্য নাম প্রাক্তন জাতীয় ক্রিকেটার তথা তৃণমূল বিধায়ক লক্ষ্মীরতন শুক্লা। আচমকা মন্ত্রিত্ব ছেড়ে দেওয়ায় জল্পনা তৈরি হয়েছিল, তিনি বিজেপিতে যাচ্ছেন কিনা তা নিয়ে। লক্ষ্মীর জেলার রাজীব ব্যানার্জি, বৈশালী ডালমিয়ারা যখন চার্টার্ড বিমানে দিল্লি উড়ে যাচ্ছেন, সেখানেও লক্ষ্মীরতনের দেখা নেই। প্রাক্তন কেকেআর তারকা আর রাজনীতির উঠোনে আসতে রাজি নন, দাবি করছে লক্ষ্মীর ঘনিষ্ঠ মহল। অর্থাৎ ভোট ময়দানে লক্ষ্মীও নেই।
বাংলার এই দুই প্রাক্তন ক্রিকেটারের গতিবিধিতে আপাতভাবে রাজনৈতিক গন্ধ না পাওয়া গেলেও এখানেই আছে কাহানি মে ট্যুইস্ট!
সূত্রের খবর, সৌরভ-লক্ষ্মীর অনুপস্থিতিতে বাংলার আরও দুই জাতীয় ক্রিকেটার নামতে চলেছেন রাজনীতিতে। তাঁদের একজন সদ্য খেলা ছেড়েছেন। অপরজন এখনও চুটিয়ে আইপিএল খেলছেন। দু’জনেই জাতীয় দলে খেলেছেন। এবার তাঁরা নামতে চলেছেন রাজনীতির ময়দানে।
জানা গিয়েছে, দু’জনের সঙ্গেই কথা চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছে একটি রাজনৈতিক দলের। আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই তাঁরা নির্দিষ্ট দলের পতাকা হাতে আত্মপ্রকাশ করবেন। ভোটে দাঁড়াবেন কি? সেই উত্তর না পাওয়া গেলেও, ভোটের ঠিক মুখে রাজনীতিতে যোগ দেওয়া অন্তত সেই ইঙ্গিতই বহন করছে, বলছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।
সব মিলিয়ে সৌরভ-লক্ষ্মীর অনুপস্থিতিতে অন্য দুই তারকা ক্রিকেটারের ভোট ময়দানে পা রাখা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। তাঁদের দেখে মত বদলাবেন কি মহারাজ-লক্ষ্মীরতন? প্রশ্ন এখন সেটাই।

Comments
Loading...