অবশেষে মিলল ছাড়, খুলে দেওয়া হলো আলিপুর চিড়িয়াখানা! প্রবেশ করা যাবে ১০ বছরের শিশু নিয়েও

চলতি বছরে করোনার কারণে হারিয়ে গেছে ভ্রমণের আমেজ। মার্চ মাস থেকেই বন্ধ কলকাতার একাধিক দর্শনীয় স্থান। যার মধ্যে রয়েছে আলিপুর চিড়িয়াখানাও। লকডাউনের পর চালু হয়েছিল আলিপুর চিড়িয়াখানার অনলাইন অ্যাপ সঙ্গে ‘আলিপুর জ্য়ু’ নামে একটা নতুন ওয়েবসাইট। তবে আনলক পর্বে সর্ব সাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হলো চিড়িয়াখানা। কিন্তু সেখানেও শিশুদেরকে নিয়ে যাওয়া নিষিদ্ধ। অবশেষে অনুমতি মিলল আলিপুর চিড়িয়াখানা তরফ থেকে। এবার ১০ বছরের শিশুরাও প্রবেশ করতে পারবে চিড়িয়াখানায় জন্তু-জানোয়ার দেখার জন্য।

সম্প্রতি আলিপুর চিড়িয়াখানার তরফ থেকে জানানো হয়েছে, এবার থেকে চিড়িয়াখানায় জন্তু-জানোয়ার দেখার জন্য প্রবেশ করতে পারবে ১০ বছরের শিশুরাও। রবিবার থেকে বাচ্চারাও প্রবেশ করতে পারবে আলিপুর চিড়িয়াখানায়। এই খবর শোনার পরেই বেশ উৎসাহিত বাচ্চা পার্টি। ইতিমধ্যেই ধীরে ধীরে শহরে ঢুকে পড়েছে শীত। এই শীতের মরসুমে ছোট শিশুদেরকে নিয়ে চিড়িয়াখানায় ঘুরতে যেতে চান অনেক পরিবারই। আনলক পর্বে চিড়িয়াখানা খুলে গেলেও বাচ্চাদের ঢোকার অনুমতি ছিল না।

তবু সেই নিষেধাজ্ঞা না মেনেই বহু পরিবার চিড়িয়াখানায় চলে আসতে লাগেন। এমনকি চিড়িয়াখানার সিকিউরিটি গার্ডের পক্ষেও অসম্ভব হয়ে পড়ছিল সেই সকল মা-বাবাকে বোঝানো। তাই সব দিকটা ভেবেই বাচ্চাদেরকে চিড়িয়াখানায় প্রবেশ করার ছাড় দিল আলিপুর চিড়িয়াখানার কর্তৃপক্ষ।

শীতের আমেজ আসবে এবার। চিড়িয়াখানায় ফের শোনা যাবে বাচ্চাদের চিল্লানি। এতদিন কেবল বড়োরা আসতো চিড়িয়াখানায়। বেশিরভাগই প্রেম করতে। তবে তা আর নয় খাঁচা বন্দি বাঘ ভাল্লুকরাও এবার বাচ্চা পার্টির সঙ্গে মেতে উঠবে। তবে এই চক্করে ভিড় বাড়বে চিড়িয়াখানায়। কোভিড প্রটোকল মেনেই মোট ২৭০০ জনকে ঢুকতে দেওয়া হবে চিড়িয়াখানার ভিতরে।

Comments
Loading...