অলোক ভার্মার ইস্তফা গ্রহণ নয়, তাঁর বিরুদ্ধে পাল্টা ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের

চলতি বছরের জানুয়ারির শুরুতে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের নিয়োগ কমিটি ২-১ ভোটে সিদ্ধান্ত নিয়েছিল, দুর্নীতির অভিযোগ থাকায় কার্যকাল শেষের আগেই অলোক ভর্মাকে সিবিআই প্রধান এর পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার। সে যাত্রায় ভার্মাকে সিবিআই থেকে সরিয়ে ফায়ার সার্ভিস বিভাগের ডিরেক্টর জেনারেল পদে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র। কিন্তু, সিবিআই এর মাথা থেকে তাঁকে এভাবে সরিয়ে দেওয়ার প্রতিবাদ করে নয়া দায়িত্ব গ্রহণ করতে অস্বীকার করেন অলোক ভার্মা এবং চাকরি থেকেই ইস্তফা দিয়ে দেন।
এবার কেন্দ্রের সিদ্ধান্তে সম্ভবত আরও কিছুটা কোণঠাসা হতে চলেছেন ভার্মা। কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার এক সূত্রের খবর, যতদিন না অলোক ভার্মার বিরুদ্ধে ওঠা দুর্নীতির অভিযোগের তদন্ত শেষ হচ্ছে ততদিন তাঁর ইস্তফাপত্র গ্রহণ করা হবে না।
পাশাপাশি, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফায়ার সার্ভিসের নয়া পদের দায়িত্ব নিতে অলোক ভার্মা অস্বীকার করায় তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ডিসিপ্লিনারি ব্যবস্থা নেওয়ার পাশাপাশি আপাতত অবসরকালীন সুযোগ সুবিধাও পাবেন না তিনি।
এর আগে সিবিআই থেকে তাঁকে সরানোর সিদ্ধান্তের সমালোচানা করে অলোক ভার্মা জানিয়েছিলেন, তাঁর সঙ্গে সঠিক বিচার করা হয়নি। আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ না দিয়েই তাঁর বিরুদ্ধে এক তরফা তদন্ত রিপোর্ট কোর্টে জমা দিয়েছে তদন্তকারী সংস্থা।
এর আগে গত অক্টোবর মাসে সিবিআই-এর অন্দরে ঘুষ কেলেঙ্কারির অভিযোগ ওঠায় তাঁকে সিবিআই প্রধানের পদ থেকে সরিয়ে ছুটিতে পাঠিয়ে দেয় কেন্দ্র। যার বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে যান অলোক ভার্মা। পরে চলতি বছরের শুরুতে সুপ্রিম কোর্ট ভার্মাকে তাঁর পুরনো পদে ফেরার নির্দেশ দিলেও, সেই নির্দেশের দু’দিন পরেই তাঁকে সিবিআই ডিরেক্টরের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বাধীন সংশ্লিষ্ট নিয়োগ কমিটি।

Comments
Loading...