মমতার সরকারকে উৎখাতের ডাক অমিত শাহর, বিজেপি বাংলা চেনে না, পাল্টা হুঙ্কার তৃণমূলের

মালদার সভা থেকে তৃণমল সরকারকে উৎখাতের ডাক দিলেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। মালদার সভা থেকে অমিত বলেন, বাংলার অপশাসন শেষ করে বাংলার মানুষের অধিকার রক্ষা করবেন তাঁরা। তৃণমূলের সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েনের পালটা কটাক্ষ, বিজেপি ভয় পেয়ে এধরনের মন্তব্য করছে। তাদের দেশ বা বাংলার সংস্কৃতি সম্পর্কে কোনও ধারণাই নেই।
রথযাত্রা হয়নি, বাতিল হয়েছে ব্রিগেড সমাবেশ, এই অবস্থায় বাংলায় দলীয় কর্মীদের চাঙ্গা করতে মঙ্গলবার এরাজ্যে উড়ে আসেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। মালদহের সভায় অমিতের হুঙ্কার, লঙ্কা ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল, আর এ তো মমতার শাসন! অমিতের তোপ, হেলিকপ্টার নামার অনুমতি না দিলে হেলিকপ্টার থেকেই ভাষণ দেবেন তিনি। প্রসঙ্গত, হেলিপ্যাড তৈরি নিয়ে রাজ্য প্রশাসনের সঙ্গে একচোট ঝামেলা ইতিমধ্যেই হয়ে গিয়েছে বিজেপির।
মহাজোটকে কটাক্ষ করে বিজেপি সভাপতি বলেন, এই জোট স্বার্থের জোট। মানুষের জন্য চিন্তিন নন বিরোধীরা। ব্রিগেড সমাবেশে যে ক’জন নেতা ছিলেন, তাঁদের অধিকাংশেরই ইচ্ছা প্রধানমন্ত্রী হওয়া। মুখ্যমন্ত্রীকে দুষে অমিত শাহ জানান, রাজ্যে ১২৯ টি প্রকল্প আনতে চায় কেন্দ্র, কিন্তু মমতার সরকার তা হতে দিচ্ছে না। যে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগে বরাবর সরব হয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অমিত তা নস্যাৎ করে পালটা দাবি করেছেন, ইউপিএ জমানার শেষ পাঁচ বছরে ১ লক্ষ ৩২ কোটি টাকা দিয়েছে ইউপিএ সরকার, মোদীজী তার আড়াই গুণ টাকা বেশি দিয়েছেন। সেই টাকা কোথায় গেল প্রশ্ন তোলেন তিনি। পাশাপাশি, বিজেপির রথযাত্রা স্থগিত করা প্রসঙ্গে অমিত বলেন, রথযাত্রা শুরু হলে মমতা সরকারের অন্তিম যাত্রা শুরু হয়ে যেত। তাই ভয় পেয়ে যাত্রার অনুমতি দেয়নি রাজ্য প্রশাসন। এর জবাব তাঁরা ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে বুঝে নেবেন বলে তৃণমূলের উদ্দেশে সতর্ক বার্তা অমিতের।
বিজেপি সভাপতির ভাষণের পরিপ্রেক্ষিতে তৃণমূলের তরফে প্রতিক্রিয়া দেন সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। তাঁর কথায়, বিজেপি নেতাদের ভাষণ নিম্নরুচির। এঁদের দিন শেষ হয়ে এসেছে বুঝে ভয় পেয়ে এ ধরনের মন্তব্য করছেন। ডেরেকের কটাক্ষ, বিজেপি না চেনে ভারতের সংস্কৃতি, না জানে বাংলার সংস্কৃতি।

Comments
Loading...