আমুলের ভুয়ো ওয়েবসাইট তৈরি করে বিজ্ঞাপন, গুগলকে আইনি নোটিশ পাঠালো আমুল

আমুলের ভুয়ো ওয়েবসাইট তৈরি করে বিজ্ঞাপন দেওয়া হচ্ছিল গুগলে। সেই ওয়েবসাইটে দাবি করা হচ্ছিল আমুলের ফ্রাঞ্চাইজি দেওয়ার জন্য মোটা অঙ্কের টাকা। দীর্ঘদিন এমন চলার পর বিষইয়টি জানতে পেরে গুগলের বিরুদ্ধে আইনি নোটিশ পাঠালো গুজরাতের ডেয়ারি ফার্ম আমুল।
আমুল এই আইনি নোটিশে গুগলের বিরুদ্ধে ‘বিজনেস টু বিজনেস’ ক্যাম্পেন চালানোর অভিযোগ এনেছে। আমুলের তরফে অভিযোগ, গুগল ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন প্রচার করে সাধারণ মানুষের টাকা লুঠ করছে এক শ্রেণীর প্রতারক। যাচাই না করেই সেই বিজ্ঞাপন চালাচ্ছে গুগল।
আমুলের ম্যানেজিং ডিরেক্টর আর এস সোধি জানান, গুগলে আমুলের ভুয়ো ওয়েবসাইট তৈরি করে দেখানো হয়েছে, কেউ আমুলের ফ্রাঞ্চাইজি নিতে আগ্রহী হলে ৩ থেকে ৬ লক্ষ টাকা দিতে হবে। যা আমুলের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সম্পূর্ণ মিথ্যে বলে জানান। এই ভুয়ো ওয়েবসাইট তৈরির জন্য গুগলের পাশাপাশি ‘গো ড্যাডি ডট কম’এর বিরুদ্ধেও ভুয়ো ওয়েবসাইটকে স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য আইনি নোটিশ পাঠিয়েছে আমুল। গুজরাতের ডেয়ারি সংস্থার দাবি, ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাস থেকে এইভাবে ভুয়ো বিজ্ঞাপন দিয়ে মানুষকে ঠকানোর পাশাপাশি ডেয়ারি সংস্থারও নাম খারাপ করা হয়েছে। ওই বিজ্ঞাপনে আমুল ফ্রাঞ্চাইজি, আমুল পার্লার এবং আমুল ডিস্ট্রিবিউটর চাওয়া হোত। প্রথমে রেজিস্ট্রেশন ফি-এর জন্য ২৫ হাজার টাকা, পরে ফোন করে ৫ লক্ষ পর্যন্ত টাকা চাওয়া হোত। টাকা পেলেই আর যোগাযোগ করা হোত না গ্রাহকদের সঙ্গে। আমুলের তরফ থেকে প্রশ্ন তোলা হয়েছে, কীভাবে গুগলের মতো সংস্থা বিজ্ঞাপনদাতা সম্পর্কে ঠিকমতো না জেনেই এই রকম বিজ্ঞাপন প্রচার করে!
এই প্রতারণা চক্রের ফাঁদে পড়ে বেশ কিছু মানুষ টাকা খুইয়েছেন ইতিমধ্যে। গুগল ইন্ডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড এবং গো ড্যাডি ওয়েবসাইটকে আইনি নোটিশ পাঠানোর পাশাপাশি আহমেদাবাদ সাইবার সেলেও অভিযোগ দায়ের করেছে আমুল। এছাড়া যাঁরা এই প্রতারণা চক্রের ফাঁদে পড়ে টাকা খুইয়েছেন তাঁদেরকেও আইনি পদক্ষেপ নিতে সাহায্য করছে ডেয়ারি সংস্থা। যদিও এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গুগলের প্রতিক্রিয়া এখনও পাওয়া যায়নি।

Comments
Loading...