আনন্দ মাহিন্দ্রা: যৌন হেনস্থাকারীদের বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স’, সংস্থায় কোনও যৌন হেনস্থাকারীর জায়গা হবে না

২০১৮ সাল। মিটু মুভমেন্টে উত্তাল দেশ। সে বছরের সেপ্টেম্বরে টেক মাহিন্দ্রার চিফ ডাইভার্সিটি অফিসার (সিডিও) রিচা গৌতমের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনেন তাঁর প্রাক্তন অধস্তন কর্মী গৌরব প্রবীর প্রামাণিক। নিজেকে সমকামী হিসাবে উল্লেখ করে গৌরবের অভিযোগ ছিল, তাঁকে একাধিকবার যৌন হয়রানি করা হয়। তদন্তের পর বরখাস্ত করা হয় অভিযুক্ত সিডিও-কে। এরপর কেটে গিয়েছে প্রায় ১ বছর। ফের মিটু মুভমেন্ট নিয়ে মুখ খুললেন মাহিন্দ্রা গ্রুপের চেয়ারম্যান আনন্দ মাহিন্দ্রা।
১৫ ই অক্টোবর ট্যুইটারে মিটু নিয়ে তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য লিখলেন দেশের বিশিষ্ট শিল্পপতি আনন্দ মাহিন্দ্রা। মাহিন্দা গ্রুপের চেয়ারম্যান লেখেন, যৌন হয়রানির ঘটনার বিরুদ্ধে তাঁদের দৃঢ় পলিসি থাকা সত্ত্বেও, বাস্তব পরিস্থিতি বেশ ভয়ানক। আনন্দ মাহিন্দ্রার স্বীকারোক্তি, বাস্তবে এমন কিছু যৌন হেনস্থার ঘটনা ঘটেছে যা পীড়াদায়ক।
গত বছর অক্টোবরে বলিউড অভিনেতা তনুশ্রী দত্ত তাঁর সহ-অভিনেতা নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ তোলেন। ২০০৮ সালে ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির শুটিংয়ের সময় তাঁকে নানা পাটেকর যৌন হয়রানি করে বলে অভিযোগ করেন তনুশ্রী। তারপর এদেশে #মিটু মুভমেন্টের জোয়ার ওঠে। বলিউড থেকে কর্পোরেট সেক্টর, একাধিক ক্ষেত্রের প্রতিষ্ঠিত মহিলারা নিজেদের যৌন হয়রানির কথা প্রকাশ্যে আনতে শুরু করেন। মিটু মুভমেন্টে অভিযুক্ত হয়েছেন বিশিষ্ট সাংবাদিক তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এম জে আকবর থেকে বলিউডের সঙ্গীত পরিচালক অন্নু মালিক। তালিকা বেশ দীর্ঘ। এই প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার তাৎপর্যপূর্ণ বার্তা দিলেন আনন্দ মাহিন্দ্রা।
ট্যুইটারে তিনি লেখেন, একটা ব্যাপার পরিষ্কার করছি, সংস্থায় যৌন হয়রানিতে কোনও অভিযুক্তকে রেয়াত করা হবে না। সে যেই হোন, তাঁর সংস্থার ভেতর যৌন হয়রানি পলিসিকে অবজ্ঞা করলে মাহিন্দা গ্রুপে তাঁর কোনও জায়গা হবে না। এবং এতে লুকোছাপার কোনও ব্যাপার থাকবে না বলে হুঁশিয়ারি দেন মাহিন্দা গ্রুপের চেয়ারম্যান।
কর্মক্ষেত্রে যৌন হেনস্থার অভিযোগ তুললে অভিযোগকারিণীকেই উল্টে ‘শাস্তি’ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে। কিছু সংস্থা তাদের সুনাম খোয়ানোর ভয়ে কর্মক্ষেত্রে যৌন হয়রানির মতো অভিযোগকে ধামাচাপা দিতে চায়। কিন্তু এই প্রেক্ষিতে মাহিন্দা গ্রুপের চেয়ারম্যান আনন্দ মাহিন্দ্রার মনোভাবের ভূয়সী প্রশংসা করেছে নেটিজেনরা।

Comments
Loading...