দুর্নীতির অভিযোগে দুই শীর্ষ কর্তা ছুটিতে, সিবিআই অফিসাররা করছেন ৩ দিনের আর্ট অফ লিভিং কোর্স

সিবিআই দপ্তরে শ্রী শ্রী রবিশঙ্করের আর্ট অব লিভিংয়ের তিনদিনের ওয়ার্কশপ। যোগ দিচ্ছেন ১৫০ জনেরও বেশি সিবিআই অফিসার, কর্মী। উপলক্ষ্য মোটিভেশন। অফিসার, কর্মীদের মনোবল বাড়াতে রবিশঙ্কর ও তাঁর সংস্থায় এধরনের কোর্স করানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিবিআই।
সম্প্রতি শীর্ষ দুই কর্তা অলক ভার্মা ও রাকেশ আস্থানার মধ্যে দুর্নীতির ইস্যুতে পারস্পরিক দ্বন্দ্বের নজিরবিহীন অভিযোগ ওঠে সিবিআইয়ে। সেই খবর প্রকাশিত হওয়া মাত্র তোলপাড় সাড়া দেশ। দু’জনেই দুর্নীতির অভিযোগে আঙুল তুলেছেন পরস্পরের দিকে। শেষ পর্যন্ত দু’জনেরই ক্ষমতা কেড়ে নিয়ে ছুটিতে পাঠানো হয়েছে। একদিন আগেই অলক ভার্মা কেন্দ্রীয় ভিজিলেন্স কমিশন (সিভিসি) র দফতরে হাজির হয়ে তাঁর বিরুদ্ধে রাকেশ আস্তানার আনা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে পালটা তথ্য নথিভুক্ত করেছেন।
দুর্নীতির অভিযোগকে কেন্দ্র করে সিবিআই-এর অন্দরে যখন তোলপাড়, সংস্থার বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়েই যখন প্রশ্ন উঠছে, তখন ‘আর্ট অফ লিভিং’ কোর্স নিয়ে ফের খবরের শিরোনামে দেশের প্রধান তদন্তকারী সংস্থা। সরকারিভাবে বলা হচ্ছে, সংস্থার কর্মী, অফিসারদের মনোবল চাঙ্গা করতে তাঁদের শ্রী শ্রী রবিশঙ্করের সংগঠনের ওয়ার্কশপে অংশগ্রহণ করানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
জানা গিয়েছে, আর্ট অফ লিভিং-এর স্বেচ্ছাসেবকরা নয়াদিল্লিতে সিবিআই সদর দপ্তরে যাবেন। সেখানে সিবিআইয়ের ইন্সপেক্টর থেকে শুরু করে অস্থায়ী ডিরেক্টর মিলে ১৫০ জনের বেশি অফিসার আর্ট অব লিভিং-এর ওয়ার্কশপে যোগ দেবেন। সিবিআই-এর এক মুখপাত্র জানান, এজেন্সিতে ইতিবাচক মানসিকতা, সমন্বয়, স্বাস্থ্যকর আবহাওয়া তৈরি করতেই আয়োজন করা হচ্ছে এ ধরনের ওয়ার্কশপের। তবে পলিসিগতভাবে ওয়ার্কশপ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে কিনা, সে প্রশ্নের উত্তর দেননি সিবিআই মুখপাত্র।
উল্লেখ্য, সুপ্রিম কোর্ট অলক ভার্মা ও  রাকেশ আস্থানার সংঘাতের বিষয়টি দু’সপ্তাহে তদন্ত করতে বলেছে কেন্দ্রীয় ভিজিলেন্স কমিশনকে (সিভিসি)। সাময়িক যুগ্ম ডিরেক্টর এম  নাগেশ্বর রাওকে এজেন্সির মাথায় বসিয়েছে কেন্দ্র, যদিও তিনি কোনও পলিসিগত সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন না। তিনদিনের ওয়ার্কশপ শেষ হবে আগামী সোমবার, যেদিন তাঁকে অপসারণের জন্য কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সিবিআই প্রধান অলক ভার্মার মামলার শুনানি হবে সুপ্রিম কোর্টে। সংস্থার এই চূড়ান্ত ডামাডোল অবস্থায় আধ্যাত্মিক ও মানসিক অশান্তি নিরাময়ে এই কর্মশালা অনেকটাই কার্যকরী হবে বলে আশা করছে সিবিআই কর্তৃপক্ষ।

Comments
Loading...