সৌরভকে অশোক: ক্রিকেট জনপ্রিয়তার তুঙ্গে নিয়ে গেছে, মানুষ তোমাকে সেই ভূমিকায় দেখতে চায়

সৌরভ গাঙ্গুলির বাড়ি গিয়ে তাঁকে রাজনীতিতে আসতে মানা করলেন ‘কাকু’ অশোক ভট্টাচার্য।

বঙ্গ রাজনীতিতে জোর গুঞ্জন, বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হচ্ছেন সৌরভ গাঙ্গুলি। সম্প্রতি রাজভবনে গিয়ে রাজ্যপালের সঙ্গে সাক্ষাতের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অমিত শাহের সঙ্গে এক মঞ্চে আসায় বিসিসিআই প্রেসিডেন্টের রাজনীতি যোগ নিয়ে জল্পনা তীব্র হয়েছে। তারমধ্যেই সৌরভের বাড়ি গিয়ে তাঁকে রাজনীতিতে না নামার আবেদন জানালেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা শিলিগুড়ির সিপিএম বিধায়ক অশোক ভট্টাচার্য। একথা নিজের ফেসবুক ওয়ালে শেয়ার করেছেন বাম জমানার পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী অশোক ভট্টাচার্য।

বুধবার বিকেলে নিজের ফেসবুক ওয়ালে অশোক ভট্টাচার্য লেখেন, সৌরভের বাড়ি গেছিলাম। শিলিগুড়ি, ক্রিকেট প্রভৃতি নিয়ে সৌরভ  ও ডোনার সঙ্গে অনেক কথা হল। আমি ভোটে লড়ছি জেনে সৌরভ শুভেচ্ছা জানিয়েছে। আর তারপরেই সরাসরি সৌরভ গাঙ্গুলির রাজনীতিতে নামা প্রসঙ্গে চলে এসেছেন অশোক বাবু। লিখেছেন, রাজনীতির কথা প্রসঙ্গে আমার মত, ওর রাজনীতিতে যুক্ত না হওয়া, তাও বলেছি। পাশাপাশি অশোক ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, ক্রিকেট সৌরভকে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে নিয়ে গেছে। দেশের মানুষ চায় তা যেন অব্যাহত থাকে।

পোস্টের সঙ্গে তাঁর ও সৌরভের দুটি ছবিও দিয়েছেন অশোক ভট্টাচার্য। যে ছবিগুলো তুলে দিয়েছেন ডোনা গাঙ্গুলি।

সৌরভ গাঙ্গুলির সঙ্গে অশোক ভট্টাচার্যের সঙ্গে সৌরভ-ডোনার সুসম্পর্ক আজকের নয়। অশোক ভট্টাচার্যকে কাকু বলে ডাকেন সৌরভ। শিলিগুড়ি গেলে অশোক বাবুর বাড়ি যান সৌরভ। মহারাজের বেহালার বাড়িতে অশোক ভট্টাচার্যের জন্য অবারিত দ্বার। ক্ষমতা থেকে সরে যাওয়ার এক দশক বাদেও সম্পর্কে উষ্ণতা কমেনি। সৌরভ অশোক বাবুকে জানিয়েছেন, শীঘ্রই শিলিগুড়ি যাবেন তখন কাকিমার (অশোক ভট্টাচার্যের স্ত্রী) সঙ্গে দেখা করবেন।

আর মাত্র কয়েকটা মাস। তারপরই রাজ্যে বিধানসভা ভোট। এই প্রথমবার বাংলা জয়ের গন্ধ পাচ্ছে বিজেপি। অন্যদিকে জয়ের ব্যাপারে ১০০ শতাংশ আশাবাদী বলে দাবি তৃণমূলেরও। এই অবস্থায় সৌরভকে মুখ্যমন্ত্রী মুখ হিসেবে তুলে ধরে মাস্টারস্ট্রোক দিতে পারেন মোদী-অমিত শাহরা, এমনটাই মনে করেন পর্যবেক্ষকরা। যদিও এই প্রসঙ্গে সৌরভ কিছুই বলেননি। আবার নিজে মুখে কোনওদিন তাঁর বিজেপিতে যাওয়ার সম্ভাবনা নাকচও করেননি। এই জল্পনার খবর পৌঁছেছে অশোক ভট্টাচার্যের কানেও। শিলিগুড়ি পুর কর্পোরেশনের মুখ্য প্রশাসক অশোক ভট্টাচার্য সেই জল্পনার সূত্রেই সৌরভের কাছে তাঁর রাজনীতিতে আসার সম্ভাবনার কথা জানতে চান। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের ধারণা, সৌরভের রাজনীতিতে নামা যে তাঁর পছন্দ নয় সে কথা স্পষ্ট করার পাশাপাশি যে ক্রিকেট তাঁকে জনপ্রিয়তার শীর্ষে নিয়ে গেছে, সেখানেই প্রশাসন সামলানোর পরামর্শ দিয়েছেন পোড়খাওয়া রাজনীতিবিদ। আর ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম সেরা ক্যাপ্টেন বাম নেতাকে ভোটের আগাম শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এখন দেখার ২১ সালের মে মাসে কে কাকে অভিনন্দন জানান।

Comments
Loading...