‘কেন আসছেন না বিধানসভার কমিটির মিটিংয়ে?’ শোভনকে ফোন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের

শোভন চট্টোপাধ্যায়কে দলে ফেরাতে উদ্যোগ নিয়েছেন মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় থেকে শুরু করে কলকাতা পুরসভার বর্তমান মেয়র ফিরহাদ হাকিম। কিন্তু তাতে চিঁড়ে ভেজেনি। এবার বেহালা পূর্বের বিধায়কের কাছে ফোন গেল বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

দীর্ঘদিন প্রত্যক্ষ রাজনীতি থেকে দূরে শোভন চট্টোপাধ্যায়। এই প্রেক্ষিতে এবার তৃণমূল বিধায়কের কাছে ফোন গেল বিধানসভার স্পিকারের। শোভন কেন দীর্ঘদিন বিধানসভায় আসছেন না, সেই প্রশ্ন করেন অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি তাঁর কাছে জানতে চান, বিধানসভার যে ফিশারিজ কমিটির তিনি চেয়ারম্যান, তার বৈঠক নিয়ে শোভন কী ভাবছেন। তাঁর দীর্ঘ অনুপস্থিতির কারণে ফিশারিজ কমিটির কোনও বৈঠক হচ্ছে না, আটকে রয়েছে অনেক কাজ। তাই আগামী সপ্তাহের মধ্যে তাঁকে বিধানসভায় উপস্থিত হতে বলেন বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, আগামী সপ্তাহে বিধানসভায় গিয়ে বৈঠকে যোগ দিতে পারেন বলে স্পিকারকে জানিয়েছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়।
বছরখানেক হল দলের সঙ্গে সম্পর্ক নেই শোভন চট্টোপাধ্যায়ের। লোকসভা ভোটের পর ফিরহাদ হাকিম ফোন করে শোভনকে দলের কাজে ফিরতে বললেও সাড়া মেলেনি। ক’দিন আগেই শোভনকে রাজনৈতিকভাবে ‘সক্রিয়’ করতে গভীর রাতে তাঁর গোলপার্কের বাড়িতে গিয়েছিলেন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু তাতেও চিঁড়ে ভেজেনি। বরং এই সাক্ষাতের দু’দিন পর বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় শোভনকে পাশে নিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেন। অভিযোগ করেন, তৃণমূলে না ফেরায় তাঁকে ধর্মীয় ছাপ দিয়ে হেনস্থা করা হচ্ছে, এ নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে জানিয়েও কাজ হয়নি বলে অভিযোগ করেন তিনি। যদিও এরপর তিনি ইস্তফা দিতে গেলে তা শিক্ষামন্ত্রী গ্রহণ করেননি বলে খবর।
এই প্রেক্ষিতে শনিবার শোভন চট্টোপাধ্যায়কে স্পিকারের ফোন বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

Comments
Loading...