কাশ্মীর নিয়ে কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে ন্যাশনাল কনফারেন্স, ছন্দে ফিরছে উপত্যকা, ট্যুইট শ্রীনগরের জেলা শাসকের

জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা অবলুপ্তি এবং জম্মু-কাশ্মীরকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ করার কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ ন্যাশনাল কনফারেন্স। কেন্দ্রের সিদ্ধান্তকে বেআইনি বলে দাবি ওমর আবদুল্লার দলের।
শনিবার উপত্যকার অন্যতম প্রভাবশালী রাজনৈতিক দল ন্যাশনাল কনফারেন্সের সাংসদ মহম্মদ আকবর লোন ও হাসনাইন মাসুদি সুপ্রিম কোর্টে পিটিশন দাখিল করেন। অভিযোগ করা হয়, যেভাবে জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা তুলে নিয়ে, তাকে পৃথক দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ করা হয়েছে, তা ‘বেআইনি’। পাশাপাশি ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারে রাষ্ট্রপতির নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানানো হয়েছে ওই হলফনামায়। পিটিশনে এও দাবি করা হয়, রাতারাতি কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের ফলে উপত্যকার মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার ও স্বাধীনতা খর্ব হয়েছে। তাঁদের দাবি, সংবিধান জম্মু-কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদা প্রদান করেছে। জম্মু-কাশ্মীর বিধানসভার মতামত না নিয়ে তাই কেবলমাত্র রাষ্ট্রপতির নির্দেশে তা প্রত্যাহার সংবিধান বিরুদ্ধ। তাই শীর্ষ আদালতের কাছে ওমর আবদুল্লার দলের আবেদন, জম্মু-কাশ্মীর পুনর্গঠন আইনকে অসাংবিধানিক ঘোষণা করা হোক।
গত ৫ ই অগাস্ট জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা তুলে নেওয়ার প্রেক্ষিতে উপত্যকায় প্রচুর সেনা মোতায়েন করে কেন্দ্র। জারি হয় অঘোষিত কার্ফু। অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ হয়ে যায় দোকান-বাজার-স্কুল-কলেজ। গ্রেফতার করা হয় রাজ্যের দুই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা ওমর আবদুল্লা এবং পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতিকে। এছাড়াও গ্রেফতার হন কয়েকশো রাজনৈতিক নেতা। গৃহবন্দি করে রাখা হয় আরও বহু নেতাকে। গ্রেফতার হওয়ার পরই ওমর আবদুল্লা জানিয়েছিলেন, কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হবে তাঁর দল।
এদিকে শনিবার শ্রীনগরের জেলাশাসক শাহিদ চৌধুরী ট্যুইট করে জানান, ছন্দে ফিরছে উপত্যকা। সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, ইদের মুখে শুক্রবারই প্রার্থনার জন্যে খুলে দেওয়া হয়েছে ডোগরা, জম্মুর একাধিক ইদগাহ। কাঠুয়া ও সাম্বা জেলা থেকেও তুলে নেওয়া হয়েছে ১৪৪ ধারা। শুধুমাত্র শ্রীনগরেই ২৫০ র বেশি এটিএমে টাকা ভরে দেওয়া হয়েছে। ঈদ উপলক্ষ্যে অগ্রিম বেতনও শনিবারের মধ্যেই দিয়ে দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন শাহিদ চৌধুরী।

শুক্রবার সকালে জম্মু ও কাশ্মীরের বিভিন্ন জায়গায় ইন্টারনেট পরিষেবাও আংশিকভাবে চালু করা হয়। এদিন অনন্তনাগে গিয়ে সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল।

Comments
Loading...