শেষমেশ এটিকের সঙ্গেই মোহনবাগান! চুক্তি চূড়ান্ত সম্ভবত এই মাসেই

ভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের পক্ষ থেকে শেষ বৈঠকে বলে দেওয়া হয়েছে, আগামী বছর দুটি আই লিগ দলকে তারা আইএসএলে সুযোগ দিতে চায়। কিন্তু এই দুটি দলকে সমস্ত নিয়ম মেনেই আইএসএলে আসতে হবে। কী সেই নিয়ম? প্রায় ১৫ কোটি টাকা ফ্রাঞ্চাইজি ফি দিয়ে খেলতে হবে দল দুটিকে। তাই, ইস্টবেঙ্গল, মোহনবাগানকে যদি আগামী বছর আইএসএলে খেলতে হয়, তাহলে এই বিপুল পরিমাণ অর্থ দিয়েই খেলতে হবে। আর তার সঙ্গে দল গঠনের জন্য খরচ আনুমানিক ২৫ কোটি টাকা। অর্থাৎ, আগামী মরসুমে যদি আইএসএল খেলতে হয়, তাহলে কলকাতার দু’প্রধানকে খরচ করতে হবে প্রায় ৪০ কোটি টাকা।
উল্টোদিকে, রিলায়েন্স চাইছিল কলকাতার আইএসএল-এর দল এটিকে-কে যদি কোনও একটি বড় ক্লাবের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া যায়। সঞ্জীব গোয়েঙ্কা এই দলের প্রচুর অর্থ থাকলেও এখনও কোনও ফ্যানবেস তৈরি হয়নি। তাই সঞ্জীব গোয়েঙ্কার অর্থ, আর কোনও বড় ক্লাবের ফ্যানবেস, এটাই লক্ষ্য ছিল রিলায়েন্সের। কথা চলছিল ইস্টবেঙ্গল, মোহনবাগান দুই পক্ষের সঙ্গে। অসুবিধা হচ্ছিল অন্য জায়গাতে। এটিকে যে ক্লাবের সঙ্গে যুক্ত হবে, তাদের প্রায় ৮০ শতাংশ শেয়ার নিজেদের দখলে রাখতে চাইবে। সেই ক্লাবের নামের আগে বসবে এটিকে। ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে কথা কিছুটা এগোলেও আর শেষ পর্যন্ত চুক্তি হয়নি। কিন্তু মোহনবাগান কর্তাদের আর উপায় ছিল না। শেষ কয়েক বছর ধরেই তাদের স্পনসর নেই। নিজের টাকায় দল চালাচ্ছেন সৃঞ্জয় বসুরা। তাই এটিকের ‘অসম্মানজনক’ চুক্তিতেই তারা রাজি হয়েছেন। বড়সড়ো কোনও অঘটন না ঘটলে, আগামী বছর থেকেই একসাথে খেলবে ‘এটিকে মোহনবাগান’। যদিও বিষয়টিতে ভীষণ ক্ষুব্ধ বড় অংশের মোহনবাগান সমর্থক। তাদের বক্তব্য এটিকের কাছে ক্লাব বিক্রি করে দিলেন কর্তারা।

 

Comments
Loading...