রায়গঞ্জে তৃণমূল প্রার্থীর প্রচারে বাংলাদেশি অভিনেতা ফিরদৌস, বিধি ভঙ্গের অভিযোগে কমিশনে বিজেপি

বিপাকে অভিনেতা ফিরদৌস। ভারতে এসে ভোট প্রচারে অংশ নেওয়ার ঘটনায় একেবারেই খুশি নয় কলকাতার বাংলাদেশ ডেপুটি হাই কমিশন। তাঁকে এসব থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে সূত্রের খবর।
অভিযোগ, সোমবার উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী কানাইলাল আগরওয়ালের সমর্থনে প্রচার করেন ফিরদৌস। তাঁর সঙ্গে ছিলেন টলিউডের আরও দুই অভিনেতা অঙ্কুশ ও পায়েল সরকার।
কিন্তু এই দেশের নাগরিকই নন, এমন অভিনেতা কী করে লোকসভা ভোটের প্রচার করতে পারেন, প্রশ্ন তোলে বিরোধীরা। নির্বাচনী আচরনবিধি ভাঙার জন্য নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দেয় বিজেপি। সেই সঙ্গে প্রচারের ছবি ও ভিডিও ফুটেজও কমিশনে জমা দেয় তারা। পাশাপাশি, রায়গঞ্জের তৃণমূল প্রার্থী কানাইলাল আগরওয়ালের মনোনয়ন বাতিলেরও দাবি করেছে বিজেপি।
এদিকে, নির্বাচন কমিশনে এই অভিযোগ দায়ের হওয়ায় ঘটনায় অত্যন্ত ক্ষুব্ধ কলকাতার বাংলাদেশ ডেপুটি হাই কমিশন। ফিরদৌসকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে বলে হাই কমিশন সূত্রের খবর। তাঁকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর ব্যাপারেও চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।
অন্যদিকে, রায়গঞ্জের তৃণমূল প্রার্থী কানাইলাল আগরওয়াল দাবি করেছেন, তিনি তারকা অভিনেতা ফিরদৌসের প্রচার নিয়ে কিছুই জানতেন না। তাঁর নির্বাচনী প্রচার তিনি নিজেই করেন বলেও মন্তব্য করেন রায়গঞ্জের তৃণমূল প্রার্থী।
এই প্রেক্ষিতে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের কটাক্ষ, কাল হয়তো ইমরান খানকেও প্রচারে ডাকবে তৃণমূল।

Comments
Loading...