ভারতী ঘোষের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে জখম তৃণমূল কর্মী, উত্তপ্ত কেশপুর

রবিবার ভোটের দিন সকাল থেকে দফায় দফায় উত্তপ্ত পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশপুর। এদিন সকালে ঘাটাল কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী কেশপুরের একটি বুথে ঢোকার চেষ্টা করলে তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা তাঁকে বাধা দেন। পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে পড়ে দোগাছিয়া এলাকায়। সূত্রের খবর, ভারতী ঘোষের নিরাপত্তা রক্ষীদের গুলিতে এক তৃণমূল কর্মী গুলিবিদ্ধ হন।
জানা গিয়েছে, কেশপুরের দোগাছিয়া এলাকায় একটি বুথের সামনে ভিড় ছিল। বুথের সামনে পৌঁছে সেই ভিড় হঠাতে চেষ্টা করেন ভারতী ঘোষ। সূত্রের খবর, স্থানীয় মানুষজন ভারতীকে ঘিরে ধরলে তাঁর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কেন্দ্রীয় বাহিনী ৫ রাউন্ড গুলি চালায়। অভিযোগ, সেই গুলি লাগে এক ভোটারের হাতে। তাঁর নাম বখতিয়ার খান। তিনি স্থানীয় তৃণমূল কর্মী। এরপরই পরিস্থিতি উত্তেজিত হয়ে পড়ে। ভারতী ঘোষের কনভয়ের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। ভাঙচুর হয় সংবাদমাধ্যমের গাড়িও।
কিছুদিন আগেই কেশপুরে প্রচারে গিয়ে ঘাটালের বিজেপি প্রার্থী এবং প্রাক্তন আইপিএস অফিসার ভারতী ঘোষ প্রকাশ্যেই বলেছিলেন, উত্তর প্রদেশ থেকে এক হাজার ছেলে নিয়ে এসে তৃণমূল কর্মীদের কুকুরের মতো মারবেন। তারপর থেকে বারবারই উত্তেজনা ছড়িয়েছে কেশপুরে। ভোটের ঠিক তিন দিন আগে মাঝরাতে ভারতী ঘোষের গাড়ি থেকে ১ লক্ষ ১৩ হাজার টাকা উদ্ধার হয়।
এদিন তৃণমূল কর্মীর গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর অভিযোগ উঠেছে, ভারতী ঘোষ নিজে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানকে গুলি চালানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

Comments
Loading...