পাখি থেকে এবার মানুষের শরীরে হানা “বার্ড ফ্লু” -র ভাইরাস

একটি পোলট্রি ফার্মের ৭ জন কর্মী শরীরে বার্ড ফ্লু (Bird flu H5N8) ভাইরাসের খোঁজ পাওয়া গেছে।

করোনাভাইরাসের আতঙ্ক কাটতে না কাটতেই নতুন ভাইরাসের আক্রমণ। এতদিন যা পাখি শরীরে ছিল তা এবার মানুষের শরীরের ছড়াচ্ছে বলে খবর। ভাবছেন কি সেই ভাইরাস! এই প্রথমবার বার্ড ফ্লু (Bird flu H5N8) ভাইরাস মানুষের শরীরে ছড়াতে শুরু করেছে। রাশিয়ার স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে জানিয়েছে যে, মানুষের শরীরে বার্ড ফ্লু ভাইরাস ট্রান্সমিশন হচ্ছে। একটি পোলট্রি ফার্মের ৭ জন কর্মী শরীরে এই ভাইরাসের খোঁজ পাওয়া গেছে।

এই ঘটনার পর রাশিয়ার স্বাস্থ্য বিভাগ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে (WHO) বিস্ফারিত ঘটনার কথা জানিয়েছে। অন্যদিকে, ওই ৭ জনকে সম্পূর্ণ আইসোলেশনে রাখা হয়েছে এবং ওই ৭ জনের সংস্পর্শে আসা কয়েকজনকে নজরে রাখা হয়েছে। দরকার পরলে তাদেরও আইসোলেশনে পাঠানো হবে। যে সাতজন সংক্রমিত হয়েছে তারা প্রত্যেকেই স্থিতিশীল অবস্থায় রয়েছে বলে জানা যাচ্ছে।

এতদিন পর্যন্ত গোটা বিশ্বের কাছে পরিষ্কার ছিল যে বার্ড ফ্লু মানুষের শরীরের থেকে অন্যের শরীরে ছড়ায় না। কিন্তু এই ঘটনাটি বিশ্ববাসীর মনে আতঙ্ক সৃষ্টি করেছে। ইতিমধ্যে ভারতে বেশ কয়েকটি রাজ্যে বার্ড ফ্লু ভাইরাসের খবর পাওয়া গিয়েছে। কেরালা, মহারাষ্ট্র, হিমাচল প্রদেশ, রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশের মত কিছু রাজ্যে পোল্ট্রি ফার্মের কয়েক হাজার মুরগি এই কারণে মেরে ফেলা হয়েছিল। WHO র তরফ থেকে জানানো হয়েছে, বার্ড ফ্লু ভাইরাস সহজে একজন থেকে অন্যজনের শরীরে ছড়ানোর সম্ভব নয় তবে আক্রান্ত মুরগির সংস্পর্শে এলে এই ভাইরাস সেই ব্যক্তির শরীরে ছড়াতে পারে।

Comments
Loading...