ভবানীপুরে বিজেপি সভাপতি নাড্ডা, কাল যাবেন ডায়মন্ড হারবার, সংগঠন পোক্ত করতে একাধিক বৈঠক

আজ, বুধবার রাজ্যে আসছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা। তবে অন্যান্য সফরের সঙ্গে এবারের সফরের পার্থক্য আছে অনেকটাই। এবার খোদ মুখ্যমন্ত্রীর ভবানীপুর এবং অভিষেক ব্যানার্জির ডায়মন্ড হারবারে দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দেবেন নাড্ডা। 

২০২১ বিধানসভা ভোটের দেরি যতই থাক, রাজনীতির কারবারিদের আর বিলম্ব সইছে না। তাই পুরোদস্তুর ভোট প্রচারে নেমে পড়েছেন। সেই উদ্যোগের অঙ্গ হিসেবে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহ পেরোতেই আবার রাজ্যে পা রাখতে চলেছেন জে পি নাড্ডা।  তাৎপর্যপূর্ণ ব্যাপার হল নাড্ডার এবারের কর্মসূচি মুখ্যমন্ত্রীর নিজের নির্বাচনী কেন্দ্র ভবানীপুর এবং অভিষেক ব্যানার্জির ডায়মন্ড হারবারে। 

বঙ্গ বিজেপি সূত্রে খবর, বুধবার বেলা ১২ টায় কলকাতা বিমানবন্দরে নামবেন জে পি। তারপর হেস্টিংসে বিজেপির নির্বাচনী অফিস উদ্বোধন। নাড্ডার পরবর্তী গন্তব্য মমতা ব্যানার্জির পাড়া ভবানীপুরের গিরিশ মুখার্জি রোড। সেখানে দলের সম্পর্ক অভিযানে যোগ দেবেন তিনি। দলীয় কর্মীদের উৎসাহ দেবেন, চায়ের কাপে চলবে কথা। তারপর কালীঘাট মন্দিরে পুজো দেবেন। এই দফায় নাড্ডার সঙ্গে সাধারণ মানুষের সাক্ষাৎ হবে না। তবে বৈঠক হতে পারে একাধিক নাগরিক সংগঠনের সঙ্গে।

বৃহস্পতিবার নাড্ডা যাবেন অভিষেক ব্যানার্জির কেন্দ্র ডায়মন্ড হারবার। সেখানে একাধিক দলীয় বৈঠকের পাশাপাশি সাংবাদিক সম্মেলনও করবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি।

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের কাছে জে পি নাড্ডার এই সফর কেবলই সাংগঠনিক। কলকাতা ও সংলগ্ন এলাকায় গেরুয়া সংগঠন যে তৃণমূলকে টক্কর দেওয়ার পক্ষে যথেষ্ট নয়, তা বুঝতে পারছেন মুরলীধর সেন লেনের নেতারা। এর আগে শহর কলকাতায় অমিত শাহ মমতার পাড়ায় গিয়ে এক বস্তিবাসী পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছিলেন। কিন্তু বিজেপির দুর্বল সংগঠনের কারণে রাজনৈতিক ফায়দা তুলতে ব্যর্থ হয় গেরুয়া শিবির। তাই সতর্ক বিজেপি নেতারা এবার সর্বভারতীয় সভাপতিকে এনে ভোটের অনেক আগে থেকেই কলকাতার সংগঠনকে পোক্ত করতে চাইছেন।

Comments
Loading...