কে গ্রেফতার হবেন দর্শকদের কাছে জানতে চাওয়া কেমন ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিজম? অর্ণব গোস্বামীর Republic TV কে ভর্ৎসনা বম্বে হাইকোর্টের

“আপনারা একাই যদি তদন্তকারী, প্রসিকিউটর এবং বিচারক বনে যান তাহলে আমাদের ভূমিকা কী? আমরা এখানে কী করছি?” সুশান্ত সিংহ রাজপুত মামলায় রিপাবলিক টিভি চ্যানেলের ভূমিকা নিয়ে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করল বম্বে হাইকোর্ট। অর্ণব গোস্বামীর নিউজ চ্যানেলকে ভর্ৎসনা করে আদালতের জিজ্ঞাসা, “হ্যাশট্যাগ অ্যারেস্ট রিয়া’, এটা ঠিক কোন ধরনের ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিজমের উদাহরণ?

বুধবার রিপাবলিক টিভির দিকে প্রশ্ন ছুড়ে বম্বে হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপঙ্কর দত্তের নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চ জানতে চায়, তদন্তাধীন কোনও মামলায় কাকে গ্রেফতার করা হবে তা দর্শকদের কাছে জানতে চাওয়া ”ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিজম” এর মধ্যে পড়ে কিনা। এরপরেই সুশান্ত সিংহ মামলায় রিপাবলিক টিভিতে সম্প্রচারিত একাধিক খবরের দিকে নজর দিয়ে বম্বে হাইকোর্টের মন্তব্য, আপনারাই যদি তদন্তকারী এবং বিচারক, তাহলে আমাদের আর কী কাজ এখানে! পাশাপাশি আদালত বলে, যদি সত্যান্বেষণে এতই আগ্রহ তাহলে ভারতীয় আইন ধারার দিকে নজর দিন। আইনকে অবজ্ঞা করা কোনও অজুহাত হতে পারে না। সংবাদমাধ্যমে মৃত অভিনেতার ছবি দেখিয়ে সেটা আত্মহত্যা নাকি হত্যা, এমন খবর পরিবেশন কখনও ইনভেস্টিগেটিং জার্নালিজম হতে পারে না, অর্ণব গোস্বামীর চ্যানেলকে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন বিচারপতিরা। বুধবার সমস্ত সংবাদমাধ্যমকে অবিলম্বে মিডিয়া ট্রায়াল চালানো বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে বম্বে হাইকোর্ট।

Comments
Loading...