‘কারও কাজ যায়নি, বেকারত্বের রিপোর্ট মিথ্যা’, মন্দার দাবি উড়িয়ে বলছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই

আর্থিক বৃদ্ধির হার তলানিতে। গত ৪৫ বছরের মধ্যে বেকারত্ব ছুঁয়েছে সর্বোচ্চ সীমা। মন্দার জেরে অটোমোবাইল সংস্থাগুলি নাগাড়ে কর্মী ছাঁটাই করছে, পার্লের মতো বিস্কুট কোম্পানিগুলিও ছাঁটাইয়ের পথে। কিন্তু এ সব তথ্য মানতে নারাজ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র দফতরের প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর দাবি, কারও কাজ যায়নি। বরং বেকারত্ব নিয়ে প্রকাশিত রিপোর্ট অসত্য বলে দাবি করেছেন তিনি।
মঙ্গলবার ভোপালে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে নিত্যানন্দ রাই বলেন, কর্মক্ষেত্রে পরিকাঠামোর উন্নতি হচ্ছে, বিভিন্ন সেক্টরে বড় বড় সংস্থা বিনিয়োগ করছে, কৃষিক্ষেত্রেও উন্নয়ন হচ্ছে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের দাবি, কারও কাজ যায়নি, উল্টে কর্মসংস্থান বাড়ছে এবং ভবিষ্যতেও বাড়বে। তাঁর আরও দাবি, কেন্দ্রের মুদ্রা লোন প্রকল্পে কোটি কোটি মানুষ স্বনির্ভরশীল হচ্ছেন। অর্থাৎ, দেশের আর্থিক মন্দার আঁচে যে বিভিন্ন সেক্টরে কর্মী ছাঁটাই চলছে কার্যত তা অস্বীকার করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র দফতরের প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই।
দ্বিতীয় মোদী সরকারের প্রথম বাজেট পেশে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ জানিয়েছেলেন, সরকারের লক্ষ্য ৫ ট্রিলিয়ন ডলারের অর্থনীতি হওয়া। কিন্তু দেশে অটোমোবাইল সংস্থার পর্যায়ক্রমে উৎপাদন বন্ধ করে দেওয়া, নাগাড়ে কর্মী ছাঁটাই, পার্লের মতো দেশের পুরনো বিস্কুট কারখানা লোকসানের জেরে ১০ হাজার কর্মী ছাঁটাই ইত্যাদি খবর, অন্য কথা বলছে। প্রায় ১০ লক্ষ কর্মীর কাজ যেতে পারে বলে আশঙ্কা অটোমোবাইল সংস্থাগুলির। যদিও এসব তথ্য ও খবরকে পুরোপুরি মিথ্যে বলে উড়িয়ে দিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী।  চন্দ্রযান ২ অভিযান, জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপ করায় দেশের একতা কতটা শক্তিশালী হয়েছে, তা নিয়ে প্রশংসায় পঞ্চমুখ তিনি।

Comments
Loading...