বড়দিনের অনেক আগেই উৎসবের প্রস্তুতি রাজ্যে, পার্ক স্ট্রিট থেকে সেন্ট পলস ক্যাথিড্রাল, চন্দননগর চার্চ সেজে উঠছে নবরূপে

দোরগোড়ায় বড়দিন। একমাস আগেই জোরকদমে প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেল রাজ্যে। গত কয়েক বছরের মতো এবারও ক্রিসমাস ফেস্টিভ্যালের আয়োজন করছে রাজ্য সরকারের পর্যটন দফতর। সেজে উঠছে কলকাতার পার্ক স্ট্রিট। রাজ্য পর্যটন দফতরের উদ্যোগে এবার কলকাতার সেন্ট ক্যাথিড্রাল চার্চ, হুগলির চন্দননগর, ব্যান্ডেল চার্চ, নদিয়ার কৃষ্ণনগর, দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুর চার্চ নবরূপে সাজছে ।
ফেস্টিভ মুডে শহরবাসীকে মজাতে অন্যান্য বছরের মতো সেজে উঠছে পার্ক স্ট্রিট। গত বারের থেকে আরও আলো ঝলমলে করে সাজিয়ে তোলা হচ্ছে রাস্তা।

২৫ শে ডিসেম্বর বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই ভিড় বাড়তে থাকে পার্ক স্ট্রিটে। রাস্তার দু’পাশে কেক, সান্তা টুপি, ক্রিস্টমাস ট্রি-র পসরা সাজিয়ে তৈরি হন দোকানদাররা। বহু রঙ, আলো আর ক্রিস্টমাস ট্রিতে মোহময়ী রূপ নেয় পার্ক স্ট্রিট। এবারও চন্দননগরের আলোক শিল্পীদের দিয়ে বোনা হচ্ছে আলোর মালা, তাছাড়া থাকছে বিভিন্ন মিউজিক্যাল পারফরমেন্স, রেস্তরাঁয় দেদার খানাপিনার মজা। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের মানুষ যেমন বড়দিন উপলক্ষ্যে পার্ক স্ট্রিটে ভিড় জমান, তেমনি অন্য সময়ের তুলনায় বিদেশি পর্যটকদের ভিড়ও থাকে চোখে পড়ার মতো। পার্ক স্ট্রিটের সঙ্গে বড়দিনে আলাদা মাত্রা পায় বো ব্যারাকস লেন। ক্রিসমাস ক্যারোল আর আলোর ভিড়ে সার বাঁধা লালবাড়িগুলো যেন অনেকদিনের ঘুমের পর জেগে ওঠে শুধু বড়দিনের জন্য। জমকালো আলোয় সাজা বো ব্যারাকসের রাস্তার পাশে দেখা যাবে বাহারি খাবারের দোকান। মোমো, সুপ, ওয়ানটন থেকে গরম কাবাব- সবই মিলবে বড়দিনে। শহরের সেন্ট পলস ক্যাথিড্রাল চার্চেও সাজো সাজো রব উঠেছে। হাতে মাত্র কয়েকটা দিন যে!
কলকাতা শহর ছাড়িয়ে ৪০০ বছরের প্রাচীন হুগলির ব্যান্ডেল চার্চও বড়দিন উপলক্ষ্যে নয়া কলেবরে সেজে উঠছে রাজ্য সরকারের পর্যটন দফতরের সহায়তায়। বড়দিনে ব্যান্ডেল চার্চ অবশ্য বন্ধ থাকে। তবে গির্জা সংলগ্ন মাঠ ও গঙ্গাতীরে ভিড় হয় পর্যটকদের। পিকনিকও হয় কাছেপিঠে। একসময়ের ফরাসি উপনিবেশ চন্দননগরও এবার মহা সমারোহে সেজে উঠছে রাজ্য সরকারের সৌজন্যে। একইভাবে কৃষ্ণনগর ও বারুইপুরের গির্জাও পর্যটক টানতে তৈরি হচ্ছে। গতবার কৃষ্ণনগর ক্যাথিড্রাল চার্চের ১৫০ বছর উপলক্ষ্যে মহা সমারোহে পালিত হয়েছিল যিশুর জন্মদিন। এবারও কৃষ্ণনগর ক্যাথিড্রালের আলোক সজ্জা, জমজমাট অনুষ্ঠান দর্শনার্থী টানবেই। তবে ক্রিস্টমাসের আনন্দ কেবল দক্ষিণবঙ্গ নয়, উত্তরবঙ্গেও বিপুল সমারোহে যিশুর জন্মদিন পালিত হয়। এবার বড়দিন উপলক্ষ্যে শিলিগুড়ির বিশ্ব বাংলা হাট সাজছে নতুনভাবে। হস্তশিল্পের প্রসারে রাজ্যে শিল্পীদের জন্য চারটি হাট তৈরি করেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। তার মধ্যে একটি হল শিলিগুড়ির বিশ্ব বাংলা হাট। বড়দিনে ক্রেতা টানতে দারুণভাবে সাজানো হচ্ছে বিশ্ব বাংলা হাটকে।
উৎসবের মরসুমে কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সতর্ক রয়েছে পুলিশ প্রশাসন। নেওয়া হয়েছে একগুচ্ছ ব্যবস্থা। ২৪ ডিসেম্বরের মধ্যেই পার্ক স্ট্রিট সহ শহরের বিভিন্ন জায়গায় নিরাপত্তা জোরদার করতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন হচ্ছে। বসানো হচ্ছে ওয়াচ টাওয়ার। রাজ্যের বিখ্যাত চার্চগুলিতে বড়দিনের ভিড় সামলাতে পুলিশ প্রশাসনের কাঁধে রয়েছে বাড়তি দায়িত্ব।

Comments
Loading...