প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ মহিলার, বিচারবিভাগ সঙ্কটে, প্রতিক্রিয়া রঞ্জন গগৈয়ের

স্বাধীন ভারতের ইতিহাসে কার্যত নজিরবিহীন। দেশের প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনলেন এক মহিলা। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছেন রঞ্জন গগৈ।

শনিবার সুপ্রিমকোর্টের ২২ জন বিচারপতিকে চিঠি লেখেন বছর ৩৫-এর এক মহিলা। চিঠিতে তিনি অভিযোগ জানিয়েছেন, তাঁকে যৌন হেনস্থা করেছেন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ। মহিলার অভিযোগ, গত বছর অক্টোবরের ১০ এবং ১১ তারিখ রঞ্জন গগৈ নিজের বাড়ির অফিসে তাঁর সঙ্গে অভব্য আচরণ করেন এবং পরে তাঁকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করেন। মহিলার আরও অভিযোগ, ঘটনার পর থেকেই তাঁর পরিবারকে হেনস্থা করা হচ্ছে, ভয় দেখানো হয়েছে, এমনকি তাঁর বিরুদ্ধে উল্টে মিথ্যা ফৌজদারি মামলা পর্যন্ত দায়ের করা হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে এই গুরুতর অভিযোগে তোলপাড় পড়ে গেছে বিচার বিভাগে।

মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে শনিবার জরুরি ভিত্তিতে শুনানি হয় সুপ্রিম কোর্টের স্পেশাল বেঞ্চে। সেখানে যৌন হেনস্থার অভিযোগ খারিজ করে দিয়ে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ বলেন, বিচার বিভাগের উপর সঙ্কট ঘনিয়ে এসেছে। আগামী সপ্তাহে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ মামলার শুনানি হওয়ার কথা। এজন্য জেনেবুঝেই আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হচ্ছে। তাঁর আক্ষেপ, দু’দশক বিচারপতির দায়িত্ব পালনের পুরস্কার কি এই? দেশের মানুষের কাছে তাঁর বার্তা, আপনারা নিশ্চিন্ত থাকুন, আগামী সপ্তাহে গুরুত্বপূর্ণ মামলাগুলির শুনানি আমিই করব।

Comments
Loading...