কেন্দ্র কুম্ভ মেলায় সহযোগিতা করে, কিন্তু গঙ্গাসাগর মেলায় নয়, সাগরে দাঁড়িয়ে অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীর

কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ফের একবার রাজ্যকে বঞ্চনার অভিযোগে সরব হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার সাগরে সরকারি অনুষ্ঠানের মঞ্চ থেকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রাজ্যের সঙ্গে বিমাতৃসুলভ আচরণ করছে কেন্দ্র। বছরে অন্তঃশুল্ক বাবদ ৪০ থেকে ৫০ হাজার কোটি টাকা কেটে নিচ্ছে, অথচ দিচ্ছে মাত্র ১০ হাজার কোটি টাকা। ১০০ দিনের কাজের টাকাও আটকানো হচ্ছে। ধর্মীয় অনুষ্ঠানে ভেদাভেদ করা নিয়েও কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী সরকারকে আক্রমণ করেন এদিন মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, কেন্দ্র কুম্ভ মেলায় সাহায্য করে, কিন্তু গঙ্গাসাগর মেলার সময় তাদের থেকে কোনও সাহায্য পাওয়া যায় না। রাজ্যে বিজেপির রথ যাত্রার অনুমতি পাওয়া নিয়ে চলতি বিতর্কের মাঝে এদিন মমতা বলেন, রথ যাত্রা মানুষ মারতে হয় না। কিন্তু তাই করার চক্রান্ত চলছে।
সাগরে নয়া বন্দর নির্মাণেও যে কেন্দ্র বাধা দিয়েছে এদিন তাও জানান মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, কেন্দ্রকে বলেছিলাম সাগরে একটা পোর্ট করতে, কিন্তু কেন্দ্র কথা শোনেনি। এদিন তিনি বলেন, কেন্দ্রের কাজ রাজ্যকে সঙ্গে নিয়ে চলা। রাজ্যের কাজে হস্তক্ষেপ করা বা বঞ্চনা করা নয়।
এদিন সাগরে এই সরকারি সভা মঞ্চ থেকে একাধিক সরকারি প্রকল্পের শিল্যান্যাস, উদ্বোধন ও পরিষেবা প্রদানের সূচনা করেন তিনি। সুন্দরবন কাপ ফুটবল প্রতিযোগিতার পুরস্কারও এদিনের মঞ্চ থেকে প্রদান করা হয়।
এদিনের অনুষ্ঠান মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন কপিল মুনি মন্দিরের মহন্ত জ্ঞানদাস, ভারত সেবাশ্রম সংঘ, ইস্কন ও রামকৃষ্ণ মিশনের প্রতিনিধিরা। কপিল মুনি মন্দিরের মহন্ত এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রধানমন্ত্রী পদে বসানোর পক্ষে ফের সওয়াল করেছেন।

Comments
Loading...